মেইন ম্যেনু

যার ছোঁয়ায় মিলিয়ে যাবে স্ট্রেচ মার্ক!

untitle_32091_1480225093

স্ট্রেচ মার্কের (ফাটা দাগ) সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। আমাদের শরীরের ত্বকে বিভিন্ন অংশে এই ফাটা দাগগুলো দেখা যায়। এই বিশ্রী দাগগুলো অসস্তিতে ফেলে দেয় আপনাকে। সাধারণত টান পড়ার কারণে এই দাগের সৃষ্টি হয়।

আরও বিভিন্ন কারণে ত্বকে স্ট্রেচ মার্ক পড়তে পারে। তার মধ্যে অন্যতম হল গর্ভধারণ, অতিরিক্ত ওজন, হরমোনের অসামঞ্জস্যতা, বংশগত কারণ ইত্যাদি।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্বকের উপরে হালকা রঙয়ের কিছু লাইন বা ভাঁজের মত দাগকে স্ট্রেচ মার্ক বলা হয়। কোমর, ঘাড়ের ভাঁজে, পেটের ভাঁজে অথবা পায়ের ভাঁজে ত্বকে ফাটা ফাটা বা কুঁচকে যাওয়ার মত দাগ পড়ে। সাধারণত শরীরের অভ্যন্তরীণ অংশে এই দাগ পড়ে। তবে অনেক সময় শরীরের দৃশ্যমান অংশেও এই দাগ হতে পারে।

ত্বকের এই ফাটা দাগ দূর করা কঠিন কাজ হলেও অসম্ভব নয়। আসুন জেনে নিই কীভাবে ঘরোয়া তেল ও উপাদানের ম্যাসাজে এ দাগ দূর করা যায়।

ক্যাস্টর অয়েল : ক্যাস্টর অয়েল স্ট্রেচ মার্কের ওপর ৫-১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এবার পাতলা সুতির কাপড় দিয়ে স্থানটি পেঁচিয়ে রাখুন। এবার গরম পানির বোতল বা প্লাস্কিক ব্যাগ ওই স্থানে আধা ঘণ্টা রাখুন। এভাবে এক মাস ম্যাসাজ করুন। দেখবেন দাগ মিলিয়ে গেছে।

অ্যালোভেরা জেল : অ্যালোভেরা জেল সরাসরি স্ট্রেচ মার্কের ওপর ম্যাসাজ করে লাগান। কিছু সময় পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়া এক কাপ অ্যালোভেরা জেল, একটি ভিটামিন এ ক্যাপস্যুল এবং ভিটামিন ই ক্যাপস্যুল একসঙ্গে মেশান। এই মিশ্রণটি ত্বকের ওপর ম্যাসাজ করে লাগান। এটি ত্বকে প্রতিদিন ব্যবহার করুন।

চিনি : চিনি প্রাকৃতিক এক্সফলিয়েট হিসেবে কাজ করে। এটি স্ট্রেচ মার্ক দূর করতে বেশ কার্যকর। এক টেবিল চামচ চিনি, বাদাম তেল এবং কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এবার এটি স্ট্রেচ মার্কের স্থানে লাগান। হালকা হাতে ম্যাসাজ করুন কয়েক মিনিট। সপ্তাহে তিন দিন অবশ্যই এটা করবেন, দেখবেন কয়েক মাসের মধ্যে আপনার স্ট্রেচ মার্ক হাওয়া হয়ে গেছে।

লেবু : লেবুর রসে প্রাকৃতিক এসিড আছে যা দাগ দূর করে থাকে। একটি লেবু থেকে রস বের করে এটি ত্বকে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। লেবুর রসের সঙ্গে আলুর রস অথবা শসার রস কিংবা টমেটোর রস মেশাতে পারেন।

আলু : আলুর রসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এবং মিনারেল আছে যা কোষ পুনর্বিন্যাস করে থাকে। এক টুকরা আলু কেটে রস বের করে নিন। এবার আলুর রস স্ট্রেচ মার্কের স্থানে লাগান। এমনভাবে লাগাবেন যেন স্ট্রেচ মার্ক সম্পূর্ণভাবে আলুর রসে ঢেকে যায়।

আলুর রস শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে আলু রস না ব্যবহার করে একটি মাঝারি আকৃতির আলু কেটে স্ট্রেচ মার্ক এর স্থানে ঘোষতে পারেন।এতেও একই রমক উপকার পাওয়া যায়।