মেইন ম্যেনু

যুবতীরা যৌনমিলনের থেকেও এখন বেশি আসক্তি হচ্ছে কিসে? জানলে অবাক হবেন

romance

মানুষ সবসময়ই সেক্স, চকোলেট, অ্যালকোহল এই গুলির প্রতি বেশি আকৃষ্ট হয়৷ মানুষের অন্যান্য ভালোলাগার বিষয় এতদিন এইগুলোই ছিল৷ তবে এখন একটি গবেষণায় ওঠে এসেছে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ যা শুনে অবাক হতেই হয়৷ এখন মানুষ সবচেয়ে বেশি আকর্ষণ বোধ করে ওয়াই-ফাইতে। কারণ, ইন্টারনেট ছাড়া এখন মানুষ যেন কিছু ভাবতেও পারে না৷ গবেষণা অবশ্য সে কথাই বলছে৷

গবেষণা বলছে প্রতি দশ জনের মধ্যে চারজনই তাদের জীবনে ইন্টারনেটকে বেশি গুরুত্ব দেয়৷ তাদের জীবনে আর অন্যান্য বিনোদনের বস্তুগুলি প্রাধান্য পায় না,যেমন সেক্স,সিনেমা,চকোলেট,সিনেমা৷ ইন্টারনেট যেন সব কিছুই মানুষের জীবনে পরিবর্তন করে দিয়েছে৷

গবেষণায় এই তথ্যই ওঠে এসেছে যে, মানুষ এখন তাদের বিনোদন বা আমোদ-প্রমোদের ১০০ শতাংশের মধ্যে ইন্টারনেটে ব্যয় করে ৪০.২ শতাংশ, সেক্সে ৩৬.৬ শতাংশ এবং চকোলেটে ১৪.৩ শতাংশ এবং প্রতিদিনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসে ব্যায় করেন ৮.৯ শতাংশ৷

আইপাসের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার পাত হুমে বলেন, ওয়াই-ফাইয়ের মাধ্যমে শুধুমাত্র ইন্টারনেট যোগাযোগ স্থাপন করা যায় তা নয় এটা মানুষের জীবনের অন্যান্য লাক্সারি এবং প্রয়োজনীয়তাকেও কেড়ে নিয়েছে৷ তিনি আরও বলেন, সেক্স, অ্যালকোহল চকোলেট এইগুলির জায়গা যে ইন্টারনেট নিয়ে নেবে তা বেশ কয়েক বছর আগেও মানুষ ভাবতে পারতো না৷
এখন আমাদের জীবনের অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গুলির মধ্যে ইন্টারনেটও ঢুকে পড়েছে৷ তাই মানুষ এখন সকালে ঘুম থেকে ওঠে রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে পর্যন্ত ইন্টারনেট ব্যবহার করে৷ কারণ এখন নেটে ইলেকট্রিকের বিল দেওয়া থেকে শুরু করে অনলাইন শপিং সবই হয়ে যায় শুধু কিছু বটন টিপলেই৷ ইন্টারনেট আমাদের কোয়ালিটি অফ লাইফেও প্রভাব ফেলেছে৷

গবেষণা থেকে আরও একটি যে বিশেষ তথ্য ওঠে এসেছে তা হল, এখন মানুষ তাদের বেরনোর জায়গা নির্বাচন করে ওয়াই-ফাই কানেকশনের ওপর নির্ভর করে৷ যেখানে ওয়াই-ফাই সেখানে ভ্রমণ৷