মেইন ম্যেনু

যুবতীর কুমারিত্ব বিক্রি

37171

বিশ বছর বয়সী এক যুবতী ক্যাথেরিন স্টোন কুমারিত্ব বিক্রি করবেন। এরই মধ্যে তার দাম উঠেছে ৪ লাখ ডলার। বর্তমানে ক্যাথেরিন অবস্থান করছেন নেভাদার একটি নিষিদ্ধ পল্লী বা পতিতালয়ে। এর মালিক ডেনিস হফ। তিনি নিজে বৈধ ১৯টি নিষিদ্ধ পল্লীর মালিক। ফেসবুকের মাধ্যমে ডেনিস হফের সঙ্গে পরিচয় হয় ক্যাথেরিনের। তার মাধ্যমেই তিনি কুমারিত্ব বিক্রির পদক্ষেপ নেন। কেন তিনি কুমারিত্ব বিক্রি করবেন?

ক্যাথেরিন বলেছেন, ২০১৪ সালে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে তার বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তাদের কোনো ইন্সুরেন্স ছিল না। ফলে তাদেরকে বাধ্য হয়েই পুড়ে যাওয়া বাড়িতে থাকতে হয়।

এ অবস্থায় তিনি একটি নতুন বাড়ি কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ জন্য অনেক টাকা প্রয়োজন। সেই টাকা সংগ্রহের জন্য তিনি কুমারিত্ব বিক্রি করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

এ নিয়ে ডেনিস হফ তার কুমারিত্ব বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছেন। এ জন্য তার তীব্র সমালোচনা হচ্ছে। সমালোচকরা বলেছেন, একজন নারী শুধু তার প্রেমিক বা স্বামীর সঙ্গে শরীর বিনিময় করতে পারে। তাদের সমালোচনার জবাব দিয়েছেন ক্যাথেরিন।

তিনি বলেছেন, সমালোচকরা বলেছেন প্রেমের ক্ষেত্রে এমনটা ঘটে থাকে। কিন্তু আমার বিষয়টি বিবেচনা করুন। কারণ, আমি আমার শরীর বিক্রি করছি আমার পরিবারের প্রতি ভালবাসার জন্য।