মেইন ম্যেনু

যেখানে বিক্রি হয় ধর্ষণের ভিডিও

rape_video_india2_29856_1478436670

ধর্ষণের শহর হিসেবে পরিচিত ভারতের দিল্লি। এক কথায় গোটা ভারতেই ধর্ষণ মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে ধর্ষণ-বর্বরতার আরও একটি অন্ধকার দিকের খোঁজ পাওয়া গেল ভারতেই।

ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় শিল্পোন্নত রাজ্য উত্তর প্রদেশ। এই প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় একটি শহর মীরুত। খেলার সামগ্রী তৈরি জন্য এটি পরিচিত।

ঠিক এই শহরেরই কিছু গ্রামে মিলবে ‘লোকাল ভিডিও’ নামে ধর্ষণের ভিডিও। মাত্র ২০ থেকে ২০০ রুপিতে মিলে এসব ভিডিও। অর্থের বিনিময়ে সেকেন্ডের মধ্যেই এসব ভিডিও ট্রান্সফার হয় গ্রাহকের মোবাইলে।

এসব ধর্ষণের ভিডিওতে ধর্ষিতার চেহারা স্পষ্ট। শোনা যায় ধর্ষিতার আর্তনাদ। ধর্ষকদের বর্বরতাও দৃশ্যমান। তবে স্থানীয় নয় এমন লোকদের কাছে এসব ভিডিও বিক্রিতে সতর্ক থাকে দোকানদাররা।

সম্প্রতি কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক নিউজ চ্যানেল আলজাজিরার এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে ভারতের এই অন্ধকার দিকটি ওঠে আসে।

সাধারণত, এসব ভিডিও বিক্রির জন্য তৈরি হয় না। উদ্দেশ্য থাকে ভুক্তভোগীকে ব্ল্যাকমেইল করা… এ নিয়ে থানায় যাতে ধর্ষিতা অভিযোগ না করে।

অনেক সময় মূলহোতার কাছ থেকে এসব ভিডিও চুরি করা হয়। বিশেষ করে মেরামতের জন্য সার্ভিসিংয়ের দোকানে দেয়া মোবাইল থেকে অনেক সময় এগুলো চুরি করা হয়। পরে এগুলা বিক্রি করা হয়।



« (পূর্বের সংবাদ)