মেইন ম্যেনু

যে কারণে মাইক্রোওয়েভের পেছনে পয়সা খরচ করবেন না

141412woman-anxious-in-front-of-m

চটজলদি খাবার প্রস্তুতে ব্যস্তদের আশীর্বাদ হয়ে উঠেছে মাইক্রোওয়েভ ওভেন। তাই অনেকেই একে ঘরের গুরুত্বপূর্ণ জিনিস বলে মনে করেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে যা আপনাকে মাইক্রোওয়েভ ওভেন কিনতে বাধা দেবে। এগুলো জেনে নিন।

১. বাড়ির সদস্যদের নিশ্চয়ই এমন খাবার খাওয়াতে চান না যাতে ভিটামিনের পরিমাণ কমে যায়? বিশেষ করে গর্ভবতী নারী ও আগত শিশুর জন্য তা ক্ষতিকর। মাইক্রোওয়েভ ওভেনে রান্না করলে ভিটামিন বি-১২ খাবার থেকে হাওয়া হয়ে যায়।

২. বেশ কয়েকজন বিশেষজ্ঞের মতে, মাইক্রোওয়েভ ওভেন খাবারে বিষাক্ত উপাদানের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। এই যন্ত্রের রাসায়নিক রশ্মি মাইক্রোওয়েভ প্রসেসিংয়ের সময় খাবারে ডিএনএ-এর সঙ্গে বিক্রিয়া করে বিষাক্ত উপাদান সৃষ্টি করে।

৩. মাইক্রোওয়েভ সত্যিকার অর্থেই অনেক ইলেকট্রিসিটি ব্যবহার করে। এতে বিদ্যুৎ বিল অনেক বেশি আসবে।

৪. বিভিন্ন গবেষণায় বলা হয়, মাইক্রোওয়েভ খাবারের মলিকিউলগুলোকে বিকৃত ও পুনর্গঠন করে। এটা শিশুদের দেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। স্মৃতিশক্তি হারানোসহ দেহে শক্তি প্রদান করতে পারে না এসব খাবার।

৫. বেশ কয়েক গবেষকের দাবি, মাইক্রোওয়েভের নন-আয়োনাইজিং তেজস্ক্রিয়তা মানুষের রক্ত ক্যান্সার কোষ সৃষ্টি করে। অবশ্য এর পক্ষে শক্ত মেলেনি এখনো।

৬. অস্ট্রেলিয়ার এক গবেষণায় বলা হয়, উচ্চ তাপমাত্রায় মাইক্রোওয়েভে খাবার রান্না করলে প্রোটিন নষ্ট হয়। এটা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

৭. মাইক্রোওয়েভ ২.৪ গিগাহার্জ রেডিয়েশন উৎপন্ন করে। এটা হৃদস্পন্দনের ওপর প্রভাব ফেলে। এতে রক্তচাপ সংক্রান্ত বিষয়ে নানা সমস্যার সৃষ্টি হয়।

৮. গর্ভবতী নারীদের মাইক্রোওয়েভে রান্না করা খাবার থেকে দূরে থাকতে বলা হয়।

৯. বেকিংয়ের কাজে মাইক্রোওয়েভ ওভেনের চেয়ে অনেক ভালো মাধ্যম ওটিজি।

১০. নান রুটি, পিজ্জা এবং তন্দুরি রান্না করতে গেলে মাইক্রোওয়েভ ওভেন ভালো মাধ্যম নয়। এতে খাবারের আর্দ্রতা নষ্ট হয়। এসব খাবারে রাবারের মতো ভাব চলে আসে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া