মেইন ম্যেনু

যে বিশ্ব সুন্দরীর জন্য সার্চ ইঞ্জিনে ‘বিস্ফোরণ’!

alicia_28789_1477489192

হিলারি ক্লিনটনের মুখোমুখি ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিতর্কে অংশগ্রহণকারী দুই রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীই একে অপরের দিকে ছুঁড়ে দিচ্ছিলেন প্রশ্নবান। যুক্তি পাল্টা যুক্তিতে গোটা হল উত্তাল। হঠাৎ হিলারির মুখে প্রাক্তন বিশ্ব সুন্দরী আলিসিয়া ম্যাকাডোর প্রসঙ্গ উঠতেই যেন বিস্ফোরণ!

ভারতের জিনিউজের খবরে বলা হয়, সেদিন বিতর্ক সভায় অংশগ্রহণ করার আগে প্রাক্তন বিশ্ব সুন্দরী আলিসিয়া ম্যাকাডোর “সেক্স টেপ” দেখছিলেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

শুধু তাই নয়, ডোনাল্ড ট্রাম্প তার টুইটার ফলোয়ারদের আলিসিয়া ম্যাকাডোর “সেক্স টেপ” সার্চ করার জন্য নির্দেশও দেন।

আলিসিয়া ম্যাকাডোকে নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন আচরণের সমালোচনার ঝড় উঠেছে গোটা আমেরিকায়।

এরপরই ৩৯ বছরের প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী আলিসিয়া ম্যাকাডোকেই হাতিয়ার করে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কোণঠাসা করেন হিলারি।

এ ঘটনায় ডোনাল্ড ট্রাম্পকে একহাত নিয়েছেন আলিসিয়া ম্যাকাডো। তিনি বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প আমাকে নিয়ে কী ভাবতে পারে, তা আমি খুব ভালো করেই জানি।
তবে এ ঘটনার পর আলিসিয়া ম্যাকাডোর “সেক্স টেপ” সার্চ করার হিড়িক পড়ে যায়। বিভিন্ন পর্ন সাইটে আলিসিয়া ম্যাকাডোর “সেক্স টেপ” সার্চ ‘আকাশ ছুঁয়েছে’। এমনকি একটি পর্ন সাইটে (নাম উল্লেখ করা হলো না) সবচেয়ে বেশি সার্চ হওয়া পর্ন তারকা লিসা আনকেও পিছনে ফেলে দেন তিনি।

উল্লেখ্য আলিসিয়া ম্যাকাডো ১৯৯৬ সালে বিশ্ব সুন্দরী শিরোপা অর্জন করেন। এখন তিনি একজন প্রখ্যাত অভিনেত্রী, গায়িকা এবং সমাজকর্মী।