মেইন ম্যেনু

যে সাত ধরনের মানুষকে এড়িয়ে চলবেন

আমাদের সমাজে বিভিন্ন ধরনের মানুষের বসবাস। তাদের সঙ্গে আমরা কোনো না কোনো সম্পর্কে জড়িত থাকি। আর সম্পর্ক এমন এক মাধ্যম, যা জীবনকে সুখী ও শান্তিপূর্ণ করে তোলে। তবে কিছু মানুষের সঙ্গ শুধুই অশান্তি সৃষ্টি করে। তাই এসব মানুষদের কাছ থেকে দূরে থাকাই শ্রেয়। কোন ধরনের মানুষদের এড়িয়ে চলবেন তা জানিয়েছে জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই। একনজরে দেখে নিতে পারেন।

১. সব মানুষের প্রতি ঘৃণাভাব

কিছু মানুষ আছে যারা সবার প্রতি ঘৃণা পোষণ করে। সুযোগ পেলেই সমালোচনা করে। পৃথিবীর সব কিছু নিয়েই তাদের সমস্যা। এ ধরনের মানুষদের কাছ থেকে ইতিবাচক কিছু আশা করা বৃথা। তাই এদের এড়িয়ে চলাই বুদ্ধিমানের কাজ।

২. ঋণের প্রবণতা বেশি

কিছু মানুষ অন্যের ওপর অনেক বেশি নির্ভরশীল হয়। নির্লজ্জের মতো কথায় কথায় অন্যের দ্বারস্থ হয়। সবশেষে সেই ঋণ শোধ করার কথা তারা বেমালুম ভুলে যায়। এই ধরনের মানুষের কাছ থেকে প্রতারণা ছাড়া কিছুই পাবেন না। তাই দূরে থাকুন এমন মানুষের কাছ থেকে।

৩. শুধু ভুল খোঁজে

এমন মানুষ রয়েছে যারা নিজের ছাড়া বাকি সবার ভুলত্রুটি খুঁজে বেড়ায়। এই ধরনের মানুষের সঙ্গে থাকলে শুধু হতাশাই মিলবে।

৪. সুসময়ের বন্ধু

কিছু মানুষ শুধু তাদের দরকারে আপনাকে পাশে রাখবে কিন্তু আপনার প্রয়োজনে তাকে পাশে পাবেন না। বিপদে তাকে স্মরণ করলে আপনাকে পিঠ দেখিয়ে কেটে পড়বে এ ধরনের মানুষ।

৫. পেছনে কথা বলা

কিছু মানুষ আছে যাদের মুখে মধু, কিন্তু অন্তরে বিষ। এ ধরনের মানুষ আপনার সামনে হাসিমুখে কথা বললেও আপনার অনুপস্থিতিতে নেতিবাচক কথা রটায়। এ ধরনের মানুষ যদি আপনার জীবনে থাকে তাহলে এখনই সাবধান হন। কেননা এই ধরনের মানুষ আপনার সুনাম ধূলিস্যাৎ করে দিতে পারে।

৬. কথা বলার সুযোগ না দেওয়া

কিছু মানুষ কারণে-অকারণে কথা বলতে ভালোবাসে কিন্তু অন্যের কথা শুনতে চায় না। এ ধরনের মানুষ কখনই আপনাকে বোঝার চেষ্টা করবে না। তাই এই প্রকৃতির মানুষদের এড়িয়ে চলুন।

৭. তুলনা করে

যে মানুষ তার সাবেক সঙ্গীর সঙ্গে প্রতিনিয়ত আপনার তুলনা করে, এমন মানুষকে নিয়ে কখনো সুখী হবেন না। এ ধরনের মানুষ আপনার শান্তি ও আত্মসম্মান নষ্ট করবে।