মেইন ম্যেনু

‘রাজকীয়’ সংবর্ধনায় ইয়াবা নিয়ে যা বললেন বদি

bodi_31805_1479990588

আগামী এক বছরের মধ্যে উখিয়া-টেকনাফ থেকে ইয়াবা ব্যবসায়ী ও মানবপাচারকারীদের বিদায় করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন সদ্য কারামুক্ত এমপি আবদুর রহমান বদি।

বৃহস্পতিবার বিকালে উখিয়া হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত এক সংবর্ধনা সভায় তিনি এ ঘোষণা দেন।

এমপি আবদুর রহমান বদি বলেন, গুটিকয়েক ব্যক্তির কারণে উখিয়া-টেকনাফের গায়ে ইয়াবা-মানবপাচারের কালিমা লেগেছে। এসব হারাম ব্যবসার একটি টাকাও এমপি বদি ও তার পরিবারের কারও পকেটে যায়নি। অথচ বদনামটি বদির ওপরই বারবার পড়েছে। এটি আর চলতে দেয়া যায় না। সবার সহযোগিতায় ইয়াবা ও মানবপাচারকারীদের এলাকা ছাড়া করা হবে।

এমপি বদি মুক্তি পরিষদের আহ্বায়ক হুমায়ুন কবির চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি হামিদুল হক চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীসহ আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এমপি বদি বলেন, গত আট বছরে উন্নয়ন কাজ থেকেই একটি টাকাও নিইনি। বৈধ বাণিজ্য করেই একাধিকবার সেরা করদাতা হয়েছি। এবারও সর্বোচ্চ কর দিয়েছি। কিন্তু মিথ্যা অভিযোগের মামলায় সাজার কারণে স্বীকৃতি হাতছাড়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে বদি কক্সবাজার বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। সেখান থেকে শতাধিক গাড়ির বহর নিয়ে তিনি উখিয়া-টেকনাফের পথে রওনা দেন। পথিমধ্যে মরিচ্যা, কোটবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে পথসভায় বক্তব্য দেন বদি। তাকে বরণ করতে উখিয়া-টেকনাফ সড়কে দুই শতাধিক তোরণ তৈরী করে রাজকীয় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

এদিকে এমপি বদির বক্তব্যকে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা বলে উল্লেখ করেছেন টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশর। তার মতে, ইয়াবা ব্যবসায়ীরাই তার জন্য গাড়ির বহর নিয়ে গেছেন।