মেইন ম্যেনু

রাজশাহীতে নিজ বাড়িতে গুলিতে বিএনপি নেতা নিহত

photo-1479294193

রাজশাহীতে নিজ বাড়িতে গুলিবিদ্ধ হয়ে জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও বিশিষ্ট ঠিকাদার খন্দকার মাইনুল ইসলাম নিহত হয়েছেন।

বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে নগরীর ফায়ার সার্ভিস মোড় এলাকার নিজ বাসায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত মাইনুলের পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, খন্দকার তিনি নিজের পিস্তল দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

স্থানীয় ব্যবসায়ী ও নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, খন্দকার মাইনুল ইসলাম বেশ কিছুদিন ধরে ব্যবসায়িকভাবে বেশ খারাপ অবস্থায় ছিলেন। ব্যাংকে মোটা অঙ্কের ঋণ রয়েছে। তিনি টাকার বিষয়ে মানসিক চাপেই আত্মহত্যা করতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

খন্দকার মাইনুল ইসলামের ছেলে লেমন জানান, তাঁর বাবা বেশ কিছুদিন ধরেই মানসিকভাবে দুশ্চিন্তায় ভুগছিলেন। আর্থিক সমস্যা ছাড়াও তিনি শারীরিকভাবেও অসুস্থ ছিলেন। এরই মধ্যে একাধিকবার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণও (স্ট্রোক) হয়েছিল।

বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদত হোসেন বলেন, খন্দকার মাইনুল ইসলামের মাথায় (কানের ওপরে) ডান পাশ দিয়ে রিভলবারের গুলি ঢুকে বাম দিক দিয়ে বেরিয়ে গেছে। নিজের লাইসেন্স করা রিভলবার দিয়েই তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে বিষয়টি আত্মহত্যা কি না, তা তদন্ত করছে পুলিশ।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্মকর্তা ডা. আরিফুল হক জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই খন্দকার মাইনুল ইসলামের মৃত্যু হয়েছে। তাঁর দুই কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। তবে ময়নাতদন্ত ছাড়া মৃত্যুর কারণ নিশ্চিতভাবে বলা যাবে না।