মেইন ম্যেনু

রোহিঙ্গাদের উপর চলমান হামলায় গণবিশ্ববিদ্যালয়ে মোমবাতি প্রজ্বলন

img_0753

গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর চলমান হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে মোমবাতি প্রজ্বলন করেছে সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (গবিসাস)।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মিডিয়া চত্ব্বরে মায়ানমারের গণহত্যায় নিহত রোহিঙ্গাদের উদ্দেশ্যে মোমবাতি প্রজ্বলন এবং এক মিনিট নিরবতা পালনের মধ্যদিয়ে এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। মোমবাতি প্রজ্বলন শেষে তারা প্রতিবাদী গান পরিবেশন করেন।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সদস্যদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বৃন্তের সভাপতি বিধান মুখার্জী, কালেরকণ্ঠ শুভসংঘ গণ বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের সভাপতি রানা মিত্র, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্তজা আলী, সাংবাদিক সমিতির উপদেষ্টা আসিফ আল আজাদসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

মোমবাতি প্রজ্বলন চলাকালীন বক্তারা মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের মুসলিম অধিবাসী রোহিঙ্গাদের উপর সেনাবাহিনীসহ স্থানীয় বৌদ্ধদের সাম্প্রদায়িক হামলার তীব্র প্রতিবাদ করেন। বিক্ষোভকারীরা দ্রুত এ অমানবিক নির্যাতন ও নিপীড়ন বন্ধের দাবি জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মুন্নি আক্তার সেনাবাহিনীর সঙ্গে বৌদ্ধদের সাম্প্রদায়িক হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন ‘ অহিংসার বানী প্রচারকারী বুদ্ধের অনুসারীদের এ কেমন বর্বরতা ? হত্যা, ধর্ষণ খুন আর দেশত্যাগে বাধ্যকরা কোন সভ্য জাতির নিদর্শন হতে পারে না’।

এছাড়া গবিসাস সদস্য পিউ রায় চৌধুরী বলেন ‘এই প্রতিবাদ শুধু রোহিঙ্গা, সাঁওতাল বা অন্যান্য সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে নয়, এই প্রতিবাদ সমগ্র মানবজাতির ওপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ’।

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্তজা আলী বাবু চলমান এই হত্যাযজ্ঞে বিশ্বনেতাদের স্থবিরতা এবং শান্তিতে নোবেলজয়ী অং সান সু চির সমালোচনা করে বলেন ‘সূ চি শান্তি নোবেল তোমার নয়। নিজের দেশেই শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে ব্যর্থ একজনকে বিশ্ববাসী শান্তি নোবেলধারী হিসাবে দেখতে চায় না’।