মেইন ম্যেনু

টেকনাফে সংবাদ সম্মেলনে বিজিবি মহাপরিচালক :

‘রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব নয়’

507

বাংলাদেশের রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন, বিজিবি মহাপরিচালক আবুল হোসেন।

শুক্রবার সকালে টেকনাফে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে বুধবার (২৩ নভেম্বর) মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ থেকে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ বন্ধ করতে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন সে দেশের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)। বাংলাদেশের বর্ডার গার্ড (বিজিবি) ও মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)’র মধ্যে আঞ্চলিক কমান্ডার পর্যায়ে এক বৈঠকে মিয়ানমারের পক্ষ থেকে এই আশ্বাস প্রদান করা হয়েছে। বুধবার কক্সবাজারে বিজিবি রেস্ট হাউজে উভয় পক্ষের মধ্যে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে ১২ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিয়েছেন বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ও রিজিওন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার ফরিদ হাসান। অপরদিকে মিয়ানমারের ৩১ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন সে দেশের বর্ডার গার্ড পুলিশ বিজিপি’র রাখাইন রিজিওনের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তু সান লিন।

বৈঠক শেষে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ও রিজিওন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার ফরিদ হাসান জানান, মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সহিংস ঘটনা ও সেনাবাহিনীর অভিযানের কারণে সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। বৈঠকে এই বিষয়ে মিয়ানমারের প্রতিনিধিদলের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ যাতে না হয় সে ব্যাপারে সর্বাত্মক পদক্ষেপ গ্রহণ ও সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে বিজিপি।

বৈঠকে উভয় পক্ষ সীমান্তে ইয়াবা ও মাদকদ্রব্য চোরাচালান প্রতিরোধে যৌথ টহল, বর্ডার লিয়াজো অফিস স্থাপন, বন্ধুত্বমূলক খেলাধুলার আয়োজনসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করে। টেকনাফ ও মংডু ট্রানজিট ঘাট দিয়ে উভয় দেশের মধ্যে একদিনের পাশ নিয়ে যাতায়াত চালু রাখার বিষয়েও আলোচনা হয়েছে বৈঠকে।

বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক বলেন, অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকের পর রাখাইন প্রদেশে শান্তিপূর্ণ অবস্থা ফিরিয়ে আনতে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ আন্তরিক ভাবে কাজ করবে বলে আমরা আশাবাদী।

বৈঠকে বাংলাদেশ দলে ছিলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সেলিম মাহমুদ চৌধুরী, কর্নেল এম এম আনিসুর রহমান, কর্নেল মো. হাবিবুর রহমান, লে. কর্নেল মো. তৌহিদুল ইসলাম পিএসসি, লে. কর্নেল মো. আনোয়ারুল আযীম, লে. কর্নেল গোলাম মনজুর সিদ্দিকী, লে. কর্নেল ইমরান উল্লাহ সরকার, লে. কর্নেল মো. আবুজার আল জাহিদ, লে. কর্নেল এ আর এম নাসিরউদ্দীন একরাম, মেজর মো. আবদুস সালাম, মেজর মাহবুব সাবের, মেজর মেহেদী হাসান রবিন প্রমুখ।