মেইন ম্যেনু

লাল কলার গুণাগুণ

kirmizi-muz-gormus-muydunuz-35625f

কলা বললে আমরা সাধারণত হলুদ পাকা কলা ও কাঁচা সবুজ কালই বুঝে থাকি। কিন্তু কখনো লাল কলা কেনার কথা ভাবি না। অবশ্য এই কলার দেখাও খুব একটা মেলে না। তবে লাল কলার যোগান স্থানীয় বাজারে অপ্রতুল হলেও মাঝে মধ্যে দুই একজন দোকানির কাছে পাওয়া যায়।

পুষ্টিবিজ্ঞানীদের মতে, শরীরে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ানো, এনার্জি লেভেল বাড়ানো, হজম শক্তি বাড়ানো থেকে শুরু করে দৃষ্টিশক্তি ভালো করার মতো কাজে ভালো ফল দেয় লাল কলা। জেনে নিন লাল কলার নানা গুণ সম্পর্কে-

১) লাল কলায় থাকে তিন ধরনের প্রাকৃতিক সুগার- ফ্রুকটোজ, সুক্রোজ ও গ্লুকোজ। শরীরের মধ্যে এই সুগারগুলো খুব তাড়াতাড়ি ভেঙে যায় এবং প্রচুর পরিমাণে শক্তি উৎপন্ন করতে সাহায্য করে। ফলে সকালের নাস্তায় লাল কলা খুবই ভালো।

২) প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোনেট ও ভিটামিন সি থাকে লাল কলায়। থাকে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টও।

৩) লাল কলায় থাকে প্রচুর পরিমাণে আঁশ। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলে লাল কলা খাওয়া ভালো। তবে শুধু কোষ্ঠকাঠিন্যের জন্যই নয়, হজম শক্তি বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করে লাল কলা।

৪) হার্টের রোগীদের জন্য লাল কলা ডায়েটে রাখা ভালো। লাল কলায় থাকে পটাসিয়াম। যা শরীরকে সোডিয়ামের খারাপ প্রভাব থেকে রক্ষা করে। পাশাপাশি রক্তচাপও কমায়।

৫) ভিটামিন এ থাকে বলে চোখের জন্য লাল কলা খুবই ভালো।

৬) লাল কলায় রয়েছে ভিটামিন বি-৬। যা হিমোগ্লোবিন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করে। ফলে যারা রক্ত স্বল্পতায় ভুগছেন তাদের জন্য লাল কলা খাওয়া খুবই ভালো।