মেইন ম্যেনু

লেননের চিঠির মূল্য ৫৭ লাখ টাকা!

lenon

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে লেখা বিখ্যাত সংগীতশিল্পী জন লেনন-এর একটি চিঠির দাম উঠেছে ৬০ হাজার পাউন্ড। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার মূল্য দাঁড়ায় ৫৭ লাখ টাকারও বেশি।

রানির পক্ষ থেকে জন লেননকে দেওয়া সম্মানসূচক ‘এমবিই’ (মোস্ট এক্সিলেন্ট অর্ডার অব দ্য ব্রিটিশ এম্পায়ার) ফিরিয়ে দেয়ার জন্য বাকিংহাম প্যালেসে ওই চিঠিটি পাঠান লেনন।

বুধবার লিভারপুলের অনুষ্ঠিত ‘দ্য বিটলস স্টোরি’ নামের একটি প্রদর্শনীতে নিলামে ওঠে হাতে লেখা ওই চিঠিটি। নিলাম পরিচালক জুলিয়েন ‘দ্য বিটলস’-এর ওই স্মারকটির দাম হাঁকেন ৬০ হাজার পাউন্ড, জানিয়েছে সিনহুয়া। ২০ বছর আগে মাত্র ১০ পাউন্ডে কেনা বিটলস এর একগুচ্ছ রেকর্ডের ভেতরে পাওয়া যায় ওই চিঠি।

চিঠিতে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে ‘এমবিই’ ফিরিয়ে দেয়ার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন লেনন।

‘দ্য বিটলস স্টোরি’র মুখপাত্র জানান, নিজের পরিচয় গোপন রাখা চিঠিটির আসল মালিকই প্রদর্শনীতে নিয়ে আসেন এই চিঠি, যেখানে সাধারন দর্শনার্থীরাই এর মূল্যমান নির্ধারন করেন।

তিনি বলেন, “চিঠিটি পরেছিলো মালিকের কাছে থাকা বিটলস-এর অনেকগুলো রেকর্ডের একটির প্যাকেটের ভেতর। লস অ্যাঞ্জেলস কেন্দ্রিক নিলাম প্রতিষ্ঠান ‘জুলিয়েন’স অকশন’ এর মিউজিক মেমোরাবিলিয়া এক্সপার্ট ড্যারেন জুলিয়েন একে বলেছেন ‘অবিশ্বাস্য সন্ধান’।”

“বুধবার জুলিয়েন-এর সাথে সাক্ষাত করার আগ পর্যন্ত চিঠির মালিক ভেবেছিলেন এটা হয়তো মূল চিঠিটির নকল। তবুও চিঠিটি খুঁজে পেয়ে তিনি অভিভূত হয়েছিলেন; কারণ তিনি বুঝতে পেরেছিলেন, এর মূল্যমান কতোটুক হতে পারে”, যোগ করেন ওই মুখপাত্র।

চিঠিটি কিভাবে তার বর্তমান মালিকের হাতে আসলো?

এমন প্রশ্নের জবাবে জুলিয়েন’স অকশনস-এর পরিচালক ড্যারেন জুলিয়েন জানান, তার ধারণা, ‘এমবিই’ ফিরিয়ে দেয়ার সময় লেনন আসলে এই চিঠিটি রানির কাছে পাঠাননি।

তার ভাষ্যে, “আপনি একটু ভালোভাবে তাকালেই দেখতে পাবেন যে চিঠিটিতে লেনন এর স্বাক্ষরে কিছু অবাঞ্ছিত দাগ পড়ে আছে। আমার তত্ত্ব হলো, জন লেনন এই অবাঞ্ছিত দাগের কারণে কখনোই চিঠিটি রানির কাছে পাঠাননি। আপনি যখন রানির কাছে চিঠি লিখবেন, আপনি অবশ্যই চাইবেন চিঠিতে যেন কোন খুঁত না থা। তার মানে তিনি চিঠিটি আরেকবার লিখেন এবং পরের লেখা চিঠিটিই আসলে রানির কাছে পাঠানো হয়েছিলো।”

জুলিয়েন’স অকশসনস এর আগে মেরিলিন মনরো, মাইকেল জ্যাকসনদের মতো তারকাদের ব্যবহৃত সামগ্রী নিলামে তুলে আলোচনায় এসেছে।