মেইন ম্যেনু

শক্তিশালী ইসি গঠনে জাতীয় পার্টির ৮ পদ্ধতি

শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে ৮টি পদ্ধতি তুলে ধরেছে সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি।

শনিবার সকালে রাজধানীর ইমানুয়েল কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ পদ্ধতি তুলে ধরেন দলের চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ।

বিশ্বের উন্নত গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে কমিশন গঠনের পদ্ধতির আলোকে তিনি ৮টি পদ্ধতির কথা তুলে ধরেন।

এরশাদ উত্থাপিত ৮ পদ্ধতির মধ্যে রয়েছে; উন্মুক্ত বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে নিয়োগ, অনুসন্ধান কমিটির মাধ্যমে নিয়োগ, সংসদ বা আইন সভার মাধ্যমে নিয়োগ, নির্বাহী প্রধানের মাধ্যমে নিয়োগ (যেমন: প্রধানমন্ত্রী/রাষ্ট্রপ্রধানের মাধ্যমে), বিচার বিভাগের মাধ্যমে নিয়োগ, জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে নিয়োগ, রাজনৈতিক দলের মাধ্যমে নিয়োগ ও একাধিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে নিয়োগ।

সংবাদ সম্মেলনে যোগ্যতা সম্পন্ন, বিশ্বাসযোগ্য ও সর্বজন গৃহীত ব্যক্তিকে নিয়োগদানের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠনের দাবি জানান জাতীয় পার্টির এই চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, ‘যথাযথ আইন কাঠামো ও তার সঠিক বাস্তবায়নের মাধ্যমে যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা সম্পন্ন, পেশাদার ও নিরপেক্ষ ব্যক্তিবর্গকে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগ দেয়া গেলে বিতর্কমুক্ত নির্বাচন কমিশন গঠন করা সম্ভব।’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান নির্বাচন কমিশন গঠনের বিষয়ে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকাসহ বেশ কয়েকটি গণতান্ত্রিক দেশের উদাহরণ টেনে নিজ দলের অবস্থানও তুলে ধরেন।