মেইন ম্যেনু

‘শাহরুখ, আমির, সালমানই আমাকে বাধ্য করেছে শরীর দেখাতে’ গোপন তথ্য ফাঁস করলেন পুনম

17

পুনম পান্ডে মানেই বিতর্ক। ২০১১ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপ চলার সময় এই মডেল ঘোষণা করেছিলেন, ভারত যদি কাপ জেতে তাহলে তিনি জনসমক্ষে নগ্ন হবেন। ভারত বিশ্বকাপ জেতার পরেও অবশ্য কথা রাখেননি পুনম। জানা যায়, বিসিসিআই-এর অনুমতির অভাবেই নাকি তিনি নগ্ন হতে পারেননি। তা না পারুন, নিজের অর্ধ নগ্ন ছবি তিনি ক্রমাগত পোস্ট করে গিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে করেছেন নানা বিস্ফোরক মন্তব্য। ফলে লাইমলাইট তাঁর উপরে থেকেছেই। এবার আর এক বিস্ফোরক মন্তব্যে তিনি দাবি করলেন, বলিউডের ‘খান’-রা অর্থাৎ শাহরুখ, সলমন আর আমির খানই নাকি তাঁকে শরীর দেখাতে বাধ্য করেছন!

নিজের শর্ট ফিল্ম ‘দি উইকএন্ড’ সংক্রান্ত সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, ‘‘কয়েকবছর আগের কথা। আমি আমার কয়েকজন সাংবাদিক বন্ধুর সঙ্গে বসে আলোচনা করছিলাম যে, কীভাবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠা যায়। আমি তার আগে প্রায় ২৫-৩০টা ক্যালেন্ডার শ্যুট করেছিলাম। কিন্তু তারপরেও কেউ আমাকে চিনত না। তখনই ভেবে দেখলাম, ইন্ডাস্ট্রিতে এমন মেয়ের সংখ্যাও তো অনেক যারা ‘খান’ এবং ‘কপুর’-দের সঙ্গে কাজ করেছে। কিন্তু তারপরেও তাদের কেউ চেনে না। ‘খান’ এবং ‘কপুর’রাই সমস্ত পরিচিতিটা পেয়ে যেত।’’

‘‘এরকম একটা সময়ে আমরা ভেবে দেখলাম, বিতর্কই মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করার সহজতম রাস্তা। আর শরীর দেখিয়ে সবচেয়ে সহজে বিতর্ক তৈরি করা যায়। সেই সময় থেকেই নিজের অর্ধনগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা শুরু করলাম। ফলে কার্যত ‘খান’ আর ‘কপুর’রাই আমাকে শরীর দেখাতে বাধ্য করেছে’’ বলেন পুনম।
বলিউডে ‘খান’ বলতে তিন নামজাদা খান পদবীধারী নায়ক—অর্থাৎ শাহরুখ, সলমন আর আমিরকেই বোঝায়। আর ‘কপূর’রা হলেন পৃথ্বীরাজ কপূরের বংশধররা, এখন যাঁদের মধ্যে রণবীর কপূরই প্রধানতম। তাঁদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে থাকতেই শরীর দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বলে দাবি করেছন পুনম। সাক্ষাৎকারে তিনি আরও জানান যে, তাঁর সেরকম কোনও স্বপ্নের রোল না থাকলেও, শাড়ি আর আঁচলে সম্পূর্ণ শরীর ঢেকে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখেন তিনি।এবেলা।