মেইন ম্যেনু

শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নিলে কর সুবিধা : শিক্ষামন্ত্রী

Nahid1446107461

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে। এ খাতে তাদের ব্যয়কৃত অর্থ যাতে কর রেয়াত পায় সে বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করছে সরকার।

এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলাপ আলোচনা চলছে বলে জানান তিনি।

শনিবার রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে প্রাইম ব্যাংক আয়োজিত বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার সহযোগিতা ছাড়া সরকারের একার পক্ষে সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব না। এজন্য দেশের সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শিক্ষার প্রসারে এগিয়ে আসা প্রয়োজন। ব্যাংকগুলো জনগণের টাকায় মুনাফা করছে। তাই জনগণের উন্নয়নে লাভের অংশ থেকে অর্থ ব্যয় করতে হবে। শুধু ব্যাংক নয়, দেশের অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকেও এ খাতে এগিয়ে আসতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষকদের গুণগত মান বৃদ্ধির ওপর জোর দিতে হবে। শিক্ষায় উন্নতি করে দক্ষ মানবসম্পদ গড়তে না পারলে ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের যে সুযোগ তা কাজে লাগানো যাবে না। প্রাইম ব্যাংকের মতো অনেক ব্যাংক এ ধরনের কার্যক্রম হাতে নিয়েছেন। তবে শিক্ষা খাতে আরো বেশি এগিয়ে আসতে হবে।

প্রাইম ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজম জে চৌধুরী সভাপতির বক্তব্যে বলেন, আমাদের এ উদ্যোগ দশ বছরে পা দিল। এ পর্যন্ত দেশের দুই হাজার ৭৮৯ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পেয়েছেন। এর মধ্যে ৮৯১ জন লেখাপড়া শেষ করে কর্মজীবন শুরু করেছেন, ১৮৩ জন ডাক্তার হয়েছেন। এ ছাড়া ৯৩ জন ডাক্তার, ১৬৬ জন ব্যাংকার ও বিসিএস ক্যাডার, ৬৬ জন আইনজীবী ও অন্যান্য পেশায়, ৪ জন পিএইচডির জন্য বিদেশে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, চলতি বছরে ৩৪৪ জনকে বৃত্তি দিচ্ছে প্রাইম ব্যাংক। মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে ইতিমধ্যে সবার কাছে বৃত্তির প্রথম কিস্তির দুই হাজার ৪০০ টাকা প্রেরণ করা হয়েছে। যা পরবর্তী সময়ে মাসিক ভিত্তিতে পাবে বৃত্তিপ্রাপ্তরা।

ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজম জে চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন প্রাইম ব্যাংক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান নাদের খান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহাম্মেদ কামাল খান চৌধুরী প্রমুখ।