মেইন ম্যেনু

‘শিগগিরই রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেনা হচ্ছে পৃথক বিমান’

biman

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর জন্য পৃথক বিমান কেনার কথা জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। সোমবার জাতীয় সংসদে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা জানান তিনি।

হাঙ্গেরি সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি প্রসঙ্গে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি পৃথক বিমান কেনার কথা বলেন।

মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ভিভিআইপি ভ্রমণের জন্য এক্সিকিউটিভ এয়ারক্রাফট কেনা হবে। অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে। খুব শিগগিরই বিমান কেনা হবে।

পানি সম্মেলনে যোগদানের উদ্দেশে রোববার হাঙ্গেরি সফরের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। পরে বিমানটি তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করে। সেখানে মেরামতের পর পুনরায় হাঙ্গেরির পথে রওনা হয়।

একটি স্ক্র ঢিলে হওয়ার কারণে বিমানের ফুয়েল প্রেসার কমে যায়। যে কারণে বিমানটি তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করে বলে জানান মেনন। রোববার রাত ১১টা ৫ মিনিটে বুদাপেস্ট বিমানবন্দরে অবতরণ করে বিমানটি। সোমবার সকালে হাঙ্গেরি থেকে ঢাকায় ফিরে এসেছে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ওই বিমানটি।

বিমানে যাত্রিক ত্রুটির ঘটনা তদন্তে দুটি কমিটি গঠন করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয় ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।

বুদাপেস্টে পানি সম্মেলনে অংশ নিয়ে বুধবার দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী।