মেইন ম্যেনু

শেষ মুহূর্তের গোলে ম্যানইউকে হতাশ করল আর্সেনাল

ইংল্যান্ডের দুই সফলতম দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও আর্সেনালের মধ্যকার ম্যাচ নিয়ে আগ্রহের কমতি ছিল না। শনিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দুই দলের মধ্যকার লড়াইয়ে বেশ উত্তাপ ছড়িয়েছে। উত্তাপ ছড়ানো ম্যাচটিতে অবশ্য কোনো দলই জয় পায়নি। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে মহারণটি ১-১ গোলের ড্রয়ে শেষ হয়েছে।

ঘরের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফেোর্ডে প্রথমার্ধে চেষ্টা করেও গোলের দেখা পায়রি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝিতে হুয়ান মাতার গোলে এগিয়ে যাওয়া দলটি জয়ের পথেই হাঁটছিল। তবে শেষ মুহূর্তে অলিভার জিরুডের গোলে দুই দলকেই পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়তে হয়।

টানা চার ম্যাচ জয়হীন থাকার পর গত ৬ নভেম্বর সোয়ানসি সিটিকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত দেয় ম্যানইউ। শনিবার ঘরের মাঠে আর্সেনালকে হারিয়েই দিয়েছিল দলটি। তবে শেষ মুহূর্তের গোলে জয়বঞ্চিত হয় মরিনহোর দল।

অন্যদিকে গত ৬ নভেম্বর টটেনহ্যামের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানে ওঠার সুযোগ হারায় আর্সেনাল। শনিবার ম্যানইউর সঙ্গে ড্র করে নিজেদের দুঃসময় আরো বাড়িয়ে নিলো এমিরেটস স্টেডিয়ামের দল।

প্রথমার্ধে আর্সেনালের বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করেই খেলেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। অন্যদিকে পাল্টা আক্রমণে ভীতি সৃষ্টি করে আর্সেন ওয়েঙ্গারের দলও। তবে কোনো দলই বিরতির আগে সাফল্যের মুখ দেখেনি।

বিরতির পর গোলের জন্য মরিয়া হয়ে পড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও আর্সেনাল। একের পর এক আক্রমণ করেও স্ট্রাইকারদের ব্যর্থতায় গোল পাচ্ছিল না কোনো দলই।

৬৩তম মিনিটে ওয়েন রুনিকে বদলি হিসেবে মাঠে নামান মরিনহো। ফলে আক্রমণের ধার বেড়ে যায় ম্যানচেন্টার ইউনাইটেডের। এরপর ফলও পায় দলটি। ৬৯তম মিনিটে অবশেষে অপেক্ষার অবসান ঘটলো ম্যানইউর।

ডান দিক থেকে বল নিয়ে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের ভেতরে ঢুকে পড়েন পল পগবা। সময় নষ্ট না করে ফাঁকায় থাকা অ্যান্ডার হেরেরাকে নিখুঁত পাস দেন এই ফরাসি মিডফিল্ডার। বিপদসীমায় বল পেয়ে ডি-বক্সের মাঝামাঝিতে থাকা হুয়ান মাতাকে পাস দেন হেরেরা। প্রথম চেষ্টাতেই লক্ষ্যভেদ করেন এই এই স্প্যানিশ তারকা।

গোল হজমের পর সমতায় ফেরার জন্য মরিয়া হয়ে পড়ে আর্সেনাল। গোলের জন্য দিশেহারা হয়ে পড়া ওয়েঙ্গার বদলি খেলোয়াড় হিসেবে অলিভার জিরুড, অ্যালেক্স অক্সলেড-চেম্বারলিন ও গ্রানিত জাকাকে মাঠে নামান। খেলার অন্তিম মুহূর্তে এর ফলও পায় আর্সেনাল।

নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হওয়ার এক মিনিট আগে চেম্বারলিন ও জিরুডের দৃঢ়তায় সমতায় ফেরে আর্সেনাল। ডান দিক থেকে মার্কাস র‌্যাসফোর্ডের বাড়ানো বল ধরে ডি-বক্সের ভেতরে দারুণ এক ক্রস বাড়ান চেম্বারলিনের। দৌড়ে এসে বুলেটগতির শটে ম্যানইউর জাল কাঁপান জিরুড। ফলে এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে দুই দল।