মেইন ম্যেনু

সবথেকে দামি পট্যাটো চিপস! এক পিস ৭৫০ টাকা!

1477202435

পট্যাটো চিপস খুব সস্তার খাবার নয়। কিন্তু তাই বলে এক পিস পট্যাটো চিপ-এর দাম ভারতীয় মুদ্রায় ৭৫০ টাকা! শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য হয় বটে, তবু কথাটা নির্যস সত্যি।

বাজার-চলতি ব্র্যান্ডেড পট্যাটো চিপস সম্পর্কে বাজার-চলতি একটা জোক মনে পড়তেই পারে— পাঁচ টাকা দিয়ে একপ্যাকেট হাওয়া কিনুন, সঙ্গে কয়েকটা পট্যাটো চিপস ফ্রি। এই বিজ্ঞাপন-ভেংচির সারাৎসার কিন্তু ব্র্যান্ডেড পট্যাটো চিপস-গুলির মহার্ঘতা। সেদিক থেকে দেখলে পট্যাটো চিপস খুব সস্তার খাবার নয়। কিন্তু তাই বলে এক পিস পট্যাটো চিপ-এর দাম ভারতীয় মুদ্রায় ৭৫০ টাকা! শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য হয় বটে, তবু কথাটা নির্যস সত্যি।

সুইডেনের বিখ্যাত ব্রুয়ারি সেন্ট এরিক’স বাজারে আনল বিশ্বের সবথেকে দামি পট্যাটো চিপস, যার একটি মাত্র ফ্লেকের দাম ৭৫০টাকা। না, কোনও প্যাকেটে নয়, এই পট্যাটো চিপস পাওয়া যাবে একটি সুদৃশ্য বাক্সে। খানিকটা জহরতের কেতায় সেই বাক্সের ভিতরে মাত্র পাঁচখানি ফ্লেক পাঁচটি খোপে বিরাজ করবে, এমনটাই দেখানো হয়েছে বিজ্ঞাপনের ছবিতে।

সামান্য ‘আলুভাজা’, তার এমন দাম কী করে হয়— এই নিয়ে ইতিমধ্যেই তোলপাড় হতে শুরু করেছে নেট-দুনিয়া। প্রস্তুতকারক সংস্থা জানাচ্ছে, উত্তর ইউরোপের এমন কিছু মশলা ও প্রকৌশল এতে প্রযুক্ত, যা ভয়ঙ্কর দামি। এই পট্যাটো চিপস সম্পূর্ণত হাতে তৈরি। আর এটির নির্মাতা সুইডেনের ওস্তাদ শেফ-বর্গ। সেন্ট এরিক’স ব্রুয়ারির অত্যন্ত দামি বিয়ার ‘ইন্ডিয়া পালে আলে’-র সার্থক অনুপান হতে পারে এই পট্যাটো চিপস, এমনটাই দাবি কোম্পানি ও সুরারসিকদের। তবে,সেন্ট এরিক’স-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে জানা গিয়েছে, এই পট্যাটো চিপস একটি সীমিত সংস্করণের মামলা। এ থেকে বিক্রয়লব্ধ আয় দান করা হবে কোনও চ্যারিটি ফান্ডে।

সবথেকে জরুরি খবরটা এই, মাত্র ১০০ বাক্স বানানো হয়েছিল এই পট্যাটো চিপস, আর ইতিমধ্যেই তা আউট অফ স্টক! -এবেলা।