মেইন ম্যেনু

সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার ৭ গোপন কৌশল

love-02-09-15

“সম্পর্ক” শব্দটি ছোট কিন্তু এর ব্যাপ্তি অনেক। অনেকে মনে করেন শুধু ভালোবাসা থাকলেই সম্পর্ক টিকে যায়। আসলেই কি তাই? ভালোবাসার পাশাপাশি সম্পর্ক টিকে থাকার জন্য প্রয়োজন বিশ্বাস, বোঝাপড়া এবং আরও কিছু বিষয়। এই ছোট ছোট বিষয়গুলো একটি সম্পর্ককে সহজ এবং সুন্দর করে তোলে। এমন কিছু বিষয় নিয়ে আজকের আয়োজন।

১। পরিবর্তন মেনে নেওয়ার চেষ্টা করুন

জীবনের প্রয়োজনে সময়ে সাথে সাথে মানুষ পরিবর্তিত হয়। আপনার সঙ্গীটিও হচ্ছে। এই পরিবর্তন মেনে নেওয়ার চেষ্টা করুন। মনোবিজ্ঞানী ড. স্টিভেন কার্গ বলেন “নিজেদের পরিবর্তনের সাথে দ্রুত মানিয়ে নেওয়া একটি সফল সম্পর্কের মূল চাবিকাঠি”। সম্পূর্ণ ভিন্ন দুটি মানুষ যখন একটি সম্পর্কে আবদ্ধ হয়, তখন মানিয়ে নিতে দুইজনের সমস্যা হয়। নিজেদের সময় দিন, নিজেদের পরিবর্তনটুকু মেনে নিন।

২। ঝগড়া

ঝগড়া করুন- কথাটি শুনে ভ্রু কুঁচকে গেছে নিশ্চয়? ছোট ছোট ঝগড়া আপনাদেরকে আরোও কাছে নিয়ে আসবে। আপনারা যখন কোন একটি বিষয় নিয়ে ঝগড়া করবেন, তখন দুইজনের মতের পার্থক্যটুকু বুঝতে পারবেন। তবে লক্ষ্য রাখবেন ঝগড়া যেন আপনাদের সম্পর্কের অন্তরায় না হয়ে দাঁড়ায়।

৩। ক্ষমা করুন

মানুষ মাত্রই ভুল হয়। ভুল মনে না রেখে ক্ষমা করার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন আপনি নিজেও ভুলের উর্ধ্বে নন। তাহলে সঙ্গীকে ক্ষমা করতে দোষ কী? ক্ষমা একটি সম্পর্কে মজবুত করে তুলে।

৪। দেয়া-নেয়া হিসাব না করা

যে কোন সম্পর্কে সমঝোতা করা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনি কী পেলেন, কতটুকু পেলেনে এই হিসাব না কষে আপনি কতটুকু করলেন সেটি লক্ষ্য করুন। তবে হ্যাঁ, একটি সম্পর্ক তখনই সফল হয় যখন সম্পর্কে দুইজনের সমান অংশগ্রহণ থাকে।

৫। হাতটি ধরুন

সঙ্গীটির হাতটি ধরুন। মনে হতে পারে হাত ধরার সাথে সম্পর্ক টিকে থাকার কী সম্পর্ক? এই একটুখানি হাত ধরা সম্পর্কটিকে করে তুলবে মধুর। স্যাইকোলজি সায়েন্সের মতে “ হাত ধরার মধ্যে একজন সঙ্গিনী নির্ভরতা খুঁজে পায়”।

৬। প্রশংসা করুন

প্রশংসা কে না পছন্দ করে, বলুন? আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীও এর ব্যতিক্রম নয়। ধন্যবাদ দিন, প্লিজ বলুন তা যত ছোট কাজই হোক না কেন। আপনার একটি ছোট ধন্যবাদ বা প্রশংসা বাক্য আপনাদের সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী করবে।

৭। মনে রাখবেন আপনি তাকে ভালোবাসেন

সম্পর্কের দুঃসময়ে মনে রাখুন, এই মানুষটি আপনার ভালোবাসার মানুষ। আপনি তাকে ভালোবাসেন। ভালোবাসার কারণগুলো মনে করার চেষ্টা করুন, দেখবেন অনেক কঠিন বিষয় সহজ হয়ে গেছে।