মেইন ম্যেনু

সানি লিওনকে বিয়ে করতে চান আমির!

শিরোনামটা দেখে চমকে ওঠারই কথা। দু’জনেরই সংসার আছে। তার উপরে একজন বলিউড সুপারস্টার, অন্যজন বলিউডে উষ্ণতা ছড়ানো সাবেক বিতর্কিত তারকা। তাহলে আমিরের প্রতি এমন অভিযোগের তীর কেন? সমালোচকরা বলছেন, আমির নাকি সানির প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েছেন। বেশি ঘনিষ্ঠ হতে চাইছেন। সম্প্রতি এমন বেশকিছু নজিরও নাকি পাওয়া গেছে।

এদিকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে যখন হেনস্তার শিকার সানি লিওন, তখন তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন আমির খান। পরে তার ছবির সেটে আমন্ত্রণও জানিয়েছিলেন সানি ও তার স্বামীকে। বলিপাড়ায় সকলেই যখন বিতর্কিত স্টার হওয়ার সুবাদে সানির ছোঁয়াচ বাঁচিয়ে চলতে চান, তখন ব্যতিক্রম আমির। কিন্তু তাই বলে তাকে বিয়ে করতে চান তিনি! কিন্তু অভিযোগ তো উঠেছে!

দিওয়ালির পার্টিতেও সানি ও ড্যানিয়েলকে নিমন্ত্রণ করেছিলেন আমির। আর তাতেই তার নামে উঠেছে এ কথা। যিনি এ অভিযোগ তুলেছেন তিনি অবশ্য স্বনামধন্য, স্বঘোষিত চিত্র সমালোচক কামাল আর খান। দিওয়ালি পার্টিতে সানিকে নিমন্ত্রণের জন্যই আমিরকে তীব্র আক্রমণ শানিয়ে কামাল লিখেছেন, আমির যদি সানিকে বিয়েও করেন তাহলে তিনি অবাক হবেন না। এমনকী এ জন্য যদি কিরণকে ডিভোর্সও করতে হয় তাহলেও নাকি রাজি হয়ে যাবেন আমির। কামালের মতে, বিতর্কিত স্টারের সঙ্গে এমন মাখোমাখো সম্পর্ক রাখার জন্য লজ্জা হওয়া উচিত আমিরের।

আরও একধাপ এগিয়ে আমিরের ধর্মাবলম্বন নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন কামাল। তার অভিযোগ, নিজেকে ধর্মনিরপেক্ষ প্রমাণ করতেই সানিকে প্রমোট করছেন আমির, তবে তিনি ভুল করছেন। কেননা এতে হিতে বিপরীত হবে। আমিরের দঙ্গল এতে বিপাকে পড়বে বলেও মনে করছেন তিনি।

বলিপাড়ায় অজয়-করণ বিবাদের মূলে ছিলেন এই কামাল আর খানই। হঠাৎ তিনি কেন আমিরকে নিয়ে পড়লেন, তা নিয়ে দ্বিধায় অনেকে। কামালের টুইট বাণে যতই বিবাদ ঘনাক, প্রমোশন পেয়েছিল করণ ও অজয়ের ছবি দুটি। সামনেই দঙ্গল-এর মুক্তি। তবে কি আমির, সানিকে নিয়ে বিতর্ক উসকে দিয়ে দঙ্গলেরই প্রমোশন করছেন কামাল?