মেইন ম্যেনু

অভিষেকের পর টানা দুই টেস্টে ৫ উইকেট মিরাজের

miraj220161029113108

মূলত ব্যাটিং অলরাউন্ডার হিসেবে পরিচিত তিনি। কিন্তু টেস্ট দলে তিনি ডাক পেয়েছেন বোলার হিসেবে। আর তাই কিনা ব্যাট রেখে বল হাতেই বার বার জ্বলে উঠছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। চট্টগ্রাম টেস্টে অভিষেকেই ছয় উইকেট নিয়ে নিজের জাত চিনিয়েছিলেন তিনি। এবার ঢাকা টেস্টেও তুলে নিলেন পাঁচ উইকেট। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে টেস্ট অভিষেকেই টানা দুই ম্যাচে পাঁচ উইকেট নেওয়ার বিরল রেকর্ড গড়লেন এ ডানহাতি অপস্পিনার ।

শুক্রবার বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা বড় রানের স্বপ্ন দেখিয়ে মাত্র ২২০ রানে অলআউট হয়। আর তাই টেস্টে টিকে থাকতে দায়িত্ব বর্তায় বোলারদের হাতে। যথারীতি ইনিংসের শুরুটা করেছিলেন মিরাজ। আগের দিনই কুক-ব্যালেন্সকে তুলে নিয়ে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন দারুণ কিছু করার। আর শনিবার এসে তার পূর্ণতা দেন বাংলাদেশের এ তরুণ তুর্কি।

শুরুটা করেছিলেন ইংল্যান্ডের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ও ভয়ংকর ব্যাটসম্যান অধিনায়ক আলিস্টার কুককে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে। এরপর ব্যাল্যান্সকে বাংলাদেশ অধিনায়কের তালুবন্দি করেন তিনি। এরপর শনিবার সকালের শুরুতেই ফেরান বাংলাদেশের মাটিতে ইংলিশদের সবচেয়ে সফল ক্রিকেটার মঈন আলিকে। সরাসরি বোল্ড আউট করেই সাজঘরের পথ দেখান তাকে।

এরপর চট্টগ্রাম টেস্টের দুই ইনিংসের মত ষষ্ঠ উইকেটে যখন চোখ রাঙাচ্ছিল ইংলিশরা, তখনই জনি বেয়ারস্ট্রোকে ফিরিয়ে দারুণ এক ব্রেকথ্রু এনে দেন তিনি। এরপর জাফর আনসারিকে নিয়ে আবারও হাল ধরার চেষ্টা করে ইংলিশরা। তবে অভিষিক্ত এ ইংলিশকে বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে দেননি মিরাজ। স্লিপে শুভাগতর ক্যাচে পরিণত করে নিজের পাঁচ উইকেট তুলে নেন তিনি।

উল্লেখ্য, এর আগে সপ্তম বাংলাদেশি হিসেবে অভিষেকে টেস্ট ক্রিকেটে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন মিরাজ। তবে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে টেস্টে টানা দুই ম্যাচে পাঁচ উইকেট নিলেন তিনি।