মেইন ম্যেনু

সিডিউল ফাঁসালেন পরীমনি

porimoni-320161023192203

‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবির সিডিউল ফাঁসিয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। গত শুক্রবার (২১ অক্টোবর) সকাল থেকে গাজীপুরের হোতাপাড়ায় ছিল ছবির শেষ অংশের শুটিং। আগেই পরীমনির সিডিউল দেওয়া ছিল। তবে কাজটি তিনি করেননি।

ছবিটি পরিচালনা করছেন শামীমুল ইসলাম শামীম। তিনি বলেন, ‘ওইদিন সারাদিনই পরীমনি বাসায় ছিলেন কিন্তু লোকেশনে আসেননি। মোবাইলে কল করে তার কাছে অনেক মিনতি করেছি শুটিং করার জন্য, তারপরও তিনি কথা শোনেননি।’

পরীমনির সিডিউল ফাঁসানোর কারণে ছবির প্রযোজকের লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। এর দ্বায় কে নেবে? বললেন নির্মাতা শামীম। জানা গেছে, ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবির নির্মাণ কাজ শেষ দিকে। ওইদিন একটি গানের শুটিং ছিল। পরীমনি আসেননি বলে গানটি বাদ দিয়েই ছবির ক্যামেরা ক্লোজ করা হয়েছে। তবে নির্মাতা শামীম আশা করছেন, গানটি না থাকায় ছবির গল্পে কোনো সমস্যা হবে না।

বছর দেড়েক আগে ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবির কাজ শুরু হয়। কিন্তু পরীমনি সিডিউল না দেয়ায় ছবির কাজ করতে পারছিলেন না নির্মাতা শামীম। তবে কয়েকদিন আগে পরীমনি সিডিউল দিয়েছিলেন এবং তিন-চারদিনের মত শুটিং হলেও শেষে একদিন ফাঁসিয়ে বেকাদায় ফেলেছেন নির্মাতা-প্রযোজককে।

তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানার জন্য পরীমনির মুঠোফোনে কয়েক দফা যোগাযোগ করা হলে তিনি শুটিং ব্যস্ততার অজুহাত দেখিয়ে ফোন রেখে দেন।

প্রসঙ্গত, সিডিউল ফাঁসানো চিত্রনায়িকা পরীমনির জন্য নতুন কিছু না, এটা তার অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তিনি এর আগে একাধিকবার সিডিউল ফাঁসানো, শুটিং সেট ছেড়ে রাগারাগি করে চলে যাওয়ার কারণে বিতর্কের মুখে পড়েছেন। চলচ্চিত্র নির্মাতা মালেক আফসারির ‘অন্তর জ্বালা’, শফিক হাসানের ‘ধুমকেতু’ ছাড়া আরো অনেক ছবির সিডিউল দিয়েও পরীমনি ফাঁসিয়েছেন।