মেইন ম্যেনু

সীমান্ত পাহারায় রাশিয়া বানালো ‘আত্মঘাতী’ রোবট

robot-russia-20161115204302

যুদ্ধের ময়দানে শত্রুর ওপর হামলা চালাতে এবার তৈরি করা হয়েছে আত্মঘাতি রোবট। অত্যাধুনিক এবং শক্তিশালী এই জোড়া ঘাতক রোবট তৈরি করেছে রাশিয়া। অন্তত ৬ কিলোমিটার দূর থেকে মানুষের গতিবিধি শনাক্ত করে তার বিরুদ্ধে আঘাত হানতে পারবে এ ধরনের রোবট।

রুশ সীমান্তের কাছাকাছি আসার অনেক আগেই যেকোনো আশঙ্কাজনক হুমকি নিষ্ক্রিয় বা ধ্বংস করে দিতেও পারবে এই জোড়া রোবট। শত্রুপক্ষের মোকাবেলায় সীমান্ত পাহারা দিতে এই রোবট মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন রুশ কর্মকর্তারা। আকাশেও নজরদারি চালাতে পারবে এসব রোবট। সীমান্তে ঢোকার আগেই স্থল বা আকাশ পথের যেকোনো হুমকি নিশ্চিহ্ন করার সক্ষমতা আছে এই রোবট দুটির।

অত্যাধুনিক এই রোবট দুটির নাম দেয়া হয়েছে ফ্লাইট। এই জোড়া রোবটে বসানো হয়েছে গুরুত্বপূর্ণ সব প্রযুক্তি। তার মধ্যে রয়েছে রাডার, এইচডি এবং থার্মাল ভিডিও ইমেজিং ও একাধিক দূরপাল্লার গ্রেনেড লাঞ্চার। নিচু দিয়ে উড়ে আসা ড্রোনসহ অন্যান্য যানবাহন শনাক্ত করতে এই রোবটে অত্যাধুনিক নজরদারির ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

এই রোবট দিয়ে দূরপাল্লার কামানের লক্ষ্যবস্তু নির্ধারণ করা যাবে বলে জানিয়েছেন রুশ প্রকৌশলীরা। গোয়েন্দা সংস্থাগুলো যখন রুশ আকাশসীমায় গোয়েন্দা ও নজরদারি বিমান পাঠাচ্ছে ঠিক তখনই এই আত্মঘাতি রোবট তৈরির কথা জানাল রাশিয়া। অনাকাঙ্ক্ষিত সন্দেহভাজনের বিরুদ্ধে পাহারা ব্যবস্থা জোরদার করতে এটি রুশ কর্তৃপক্ষকে জোরালোভাবে সহায়তা করবে বলে মনে করছেন তারা।