মেইন ম্যেনু

সুযোগ পেলে সেরা বোলিংটাই করবো : শুভাশিষ

shubashish-roy20161026103700

একজন ক্রিকেটার হিসেবে জাতীয় দলের জার্সি তোলার স্বপ্ন দেখেন শুভাশিষ রায়ও। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেই স্বপ্ন পূরণ হয়ে গেলে মন্দ কিসে? ১৫ সদস্যের স্কোয়াডে তো আছেনই। তবে কন্ডিশনের ওপর নির্ভর করছে শুভাশিষের অভিষেকের বিষয়টা।

ঢাকা টেস্টে দুই পেসার নিয়ে খেলবে বাংলাদেশ? নাকি স্পিন উইকেট হলে একজন পেসার খেলানো হবে? সেক্ষেত্রে কামরুল ইসলাম রাব্বি খেলবেন? নাকি শুভাশিষ রায়ের স্বপ্নটা পূরণ হয়ে যাবে? তাছাড়া দুই পেসার নিলে তো শুভাশিষের অভিষেক হয়ে যাচ্ছে, এটা বলা বাহুল্য।

তার চেয়েও বড় কথা, বল হাতে ঘরোয়া ক্রিকেটে সাফল্য পাওয়া শুভাশিষ জাতীয় দলে ডাক পেয়ে রোমাঞ্চিত। ঢাকা টেস্টের একাদশে সুযোগ পেলে নিজের সর্বোচ্চটাই ঢেলে দিতে মুখিয়ে আছেন তিনি। বলেন, ‘জাতীয় দলে প্রথমবারের মতো ডাক পেয়ে আমি রোমাঞ্চিত। জাতীয় লিগে ভালো করার পর আশায় ছিলাম জাতীয় দলে ডাক পেতে পারি। পেলামও…। এবার একাদশে সুযোগ পেলে নিজের সেরা বোলিংটাই করবো।’

প্রসঙ্গত, শুভাশীষ রায়ের বয়স ২৮ ছুঁইছুঁই। প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন ৫১টি। নামের পাশে যোগ করেছেন ১৩৬টি উইকেট। লিস্ট-এ ক্রিকেটে ৪৭ ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ৫৮ উইকেট। ১১টি ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে পকেটে পুরেছেন ১৬ উইকেট।