মেইন ম্যেনু

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে বেরোবি’র ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন

admission-test-1

এইচ.এম নুর আলম, বেরোবি প্রতিনিধি : রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ( বেরোবি) কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শেষ হলো ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা। গত ১৩ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১৭ নভেম্বর শেষ হওয়া ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াত চক্র ঠেকাতে প্রশাসনের কঠোর অবস্থান এবং পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতায় নিয়োজিত ছিলো বিভিন্ন ক্রীয়া সংগঠন ও জেলার ৩০ টির মতো স্টল।

ভর্তি পরীক্ষার্থীদের জন্য একই সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল ফেসবুকসহ ক্যাম্পাস রিপোর্টারদের একাধিক ফেসবুক গ্রুপ এবং পেজের নিরবচ্ছিন্ন সহযোগিতাও চলমান ছিলো। ছিলো না কোনো নেগেটিভ মার্কিং । নিরাপত্তার স্বার্থে কাউকে প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়নি। এইচএসসি’র মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড হারিয়ে যাওয়া শিক্ষার্থীদের আবেদনের মাধ্যমে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছিলো বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

নিরবচ্ছিন্ন ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্নের জন্য সহযোগিতা প্রদানকারী সকল শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারি, সাংবাদিকবৃন্দ এবং ক্রীয়াশীল সংগঠনসহ পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থী এবং তাঁদের অভিভাবক সকলকেই ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন উপাচার্য ড. একে এম নূর-উন-নবী।

এবারের ভর্তি পরীক্ষায় পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনসহ সকলেই ছিলো সর্বদা সচেতন।ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতায় ভেতরে ছিলো নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা বুথ, তথ্য বুথ এবং স্থানে স্থানে নিরাপত্তাকর্মী। সার্বিক নিরাপত্তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো বন্ধ ঘোষণা করেছিলো বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ছাড় দেওয়া হয়নি সামান্য অবহেলার।

পরীক্ষার প্রথম দিনেই পরীক্ষার সকল দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় লাইব্রেরির এক কর্মচারিকে। ২য় দিনে পরীক্ষার হলে এক পরীক্ষার্থী মোবাইল নিয়ে যাওয়ায় ভ্রাম্যমান আদালত পাঁচ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

রংপুরের এক ডিবি পুলিশকে পরীক্ষা চলাকালে ভেতরে জোর করে ঢোকার অপরাধে এবং অনিয়ম সন্দেহে পরবর্তী অনিয়ম সংঘটনের দায় স্বীকারোক্তি নিয়ে স্ট্যাম্পে লিখিত নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরীক্ষার ৪র্থ দিন এক কক্ষ পরিদর্শকের সাথে অসদাচরণের দায়ে এ রিসার্চ অফিসারকে পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও প্রশাসন থেকে জানানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইব্রাহীম কবীর বলেন, অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে তুলনা করে আমি বলতে চাই, এই পরীক্ষা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নিরাপত্তা ছিলো কঠোর।

নিরাপত্তা ব্যবস্থার কথা জানতে চাইলে প্রক্টর মো: শাহীনুর রহমান জানান, নিরাপত্তা, সুশৃঙ্খল অবস্থা এবং সকলের আন্তরিক সহযোগিতার ব্যাপার নিয়ে বলা যায়, এটি আমাদের সবচেয়ে সফল ভর্তি পরীক্ষা।

পরীক্ষা শেষে ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস এবং ছেলেদের দুটি হল খুলে দেওয়া হয়েছে। মেয়েদের হল শুক্রবার সকাল ১০ টায় খুলে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

ছয়টি অনুষদভুক্ত ২১ টি বিভাগের এই ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করেছিলো ৬১ হাজার ৫৭৭ জন শিক্ষার্থী। আগামী ২৪ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ইউনিটের পরীক্ষার ফলাফল প্রদান করা হবে বলে জানা গেছে।