মেইন ম্যেনু

সুস্থ থাকার জন্য কোন রঙের চাল খাবেন?

105146rice

বাজারে বিভিন্ন ধরনের চাল পাওয়া যায়। কিন্তু এ চালগুলোর মধ্যে কোনটি স্বাস্থ্যসম্মত এ নিয়ে অনেকের মাঝেই বিভ্রান্তি রয়েছে। এ লেখায় তুলে ধরা হলো কয়েক ধরনের চালের নানা বিষয়।

বাদামি চাল
ধান ছাড়ানো হলে চালের যে অংশটি উন্মুক্ত হয় তা অনেকটা বাদামি রঙের। চালের রঙিন এ অংশটিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন। চাল যদি হালকা চাপ প্রয়োগ করে ভাঙানো হয় তাহলে এ অংশটি থেকে যায় চালের সঙ্গে। এ চালের পুষ্টিগুণ অনেক বেশি। এছাড়া আরেক ধরনের চাল রয়েছে কিছুটা লালাভ রঙের। প্রায় সারা বিশ্বেই এ ধরনের চাল পাওয়া যায়। পুষ্টিগুণের বিচারে বাদামি কিংবা লালাভ, উভয় চালেরই পুষ্টিগুণ কিছুটা বেশি। এগুলোতে ফাইবার, ভিটামিন বি, ক্যালসিয়াম, জিংক, আয়রন, ম্যাঙ্গানিজ, সেলেনিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও অন্যান্য পুষ্টিগুণ রয়েছে। এছাড়া এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পরিমাণও বেশি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চালের খোসার লাল রংটি প্রাকৃতিকভাবে তৈরি হয় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে। আর এটি ফেলে না দিয়ে খাদ্যে সঙ্গে রাখার চেষ্টা করাই ভালো।

ঝকঝকে সাদা চাল নয়
অনেকেই ঝকঝকে সাদা চাল খেতে পছন্দ করেন। এ চাল তাই বাজারে বেশ বিকোয়। স্বাভাবিক চালকে অনেক সময় ইউরিয়া কিংবা অন্য কোনো রাসায়নিক ব্যবহার করে সাদা করা হয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চাল যদি কৃত্রিমভাবে ঝকঝকে করার জন্য বাড়তি কোনো উপাদান ব্যবহার করা হয় তাহলে তা ক্ষতিকর হতে পারে। এছাড়া অনেক মিলে চালের ওপরের অংশ ঘসে ফেলে দেওয়া হয়। এতে যে চালটি থাকে তা ঝকঝকে দেখায়। এ ধরনের চালে পর্যাপ্ত পুষ্টিগুণ থাকবে না। কারণ চালের প্রচুর ভিটামিন ও অন্যান্য উপদান থাকে খোসার কাছাকাছি। আর ঘসে বাইরের অংশ মসৃণ করার সময় সে পুষ্টিগুণও অনেকাংশে চলে যায়। এ ধরনের চালে ভিটামিন বি-এরও ঘাটতি থাকে। তাই কেনার সময় সর্বদা চালটি অতিরিক্ত সাদা কি না, দেখে নিন। অতিরিক্ত সাদা চাল এড়িয়ে চলুন।

সাবধানে বাছাই করুন
বাজারে এখন অনেক দোকানেই বাদামি বা লালাভ চাল পাওয়া যায়। তবে বাজারের সব চালই ভালো নয়। বাড়তি দামের আশায় অনেক বিক্রেতা চালে লাল রং মেশাতে পারে। এক্ষেত্রে আপনার খেয়াল রাখতে হবে চাল থেকে রং উঠছে কি না। চালের প্রাকৃতিক যে বাদামি বা লাল রং তা পানিতে ধুলেও উঠবে না। অন্যদিকে দোকানি যদি বাড়তি রং প্রয়োগ করে তাহলে তা ধোয়ার সময় বোঝা যাবে। এছাড়া সত্যিকার বাদামি চাল আপনি একটু ভালোভাবে লক্ষ্য করলেই বুঝতে পারবেন যে এটি আসল কি না। এজন্য তা কতখানি মসৃণ খেয়াল করুন। আসল বাদামি বা লালাভ চাল কিছুটা অমসৃণ হবে।

–ওয়েবসাইট অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব



« (পূর্বের সংবাদ)