মেইন ম্যেনু

সেই বিশ্বখ্যাত ‘আফগান মোনালিসা’ শরবত বিবি, এখন জঘন্য অপরাধে গ্রেফতার

monalisa

১৯৮৫ সালের আগে কেউ চিনত না এঁকে। কেনই বা চিনবে! আফগানিস্তানের এক গ্রাম্য মেয়ে। কিন্তু একটি ছবির পরে তিনি বিশ্বের কাছে পরিচিত হয়ে যান। নাম হয়ে যায়, আফগান যুদ্ধের মোনালিসা।

আসল নাম শরবত বিবি। ১৯৮৪ সালে পেশোয়ারের কাছে একটি রিফিউজি ক্যাম্পে এঁর ছবি তোলেন ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ম্যাগাজিনের ফোটোগ্রাফার স্টিভ ম্যাককারি। আর সেই ছবিটাই ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ম্যাগাজিনের ১৯৮৫ সালের জুন মাসের সংখ্যার প্রচ্ছদ ছবি হয়। রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যান আফগানিস্তানের রিফিউজি ক্যাম্পের এই মেয়ে। তখন তাঁর বয়স মাত্র ১২ বছর। আর এখন বয়স ৪৩ বছর।

শরবত বিবিকে নিয়ে একটি তথ্যচিত্রও তৈরি করে ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক। সেই ছবিতেই তাঁকে আফগান যুদ্ধের মোনালিসা বলে উল্লেখ করা হয়। এমনটাই জানিয়েছে, পাকিস্তানের পত্রিকা ডন। সেখানেই বলা হয়েছে, বুধবার সেই মোনালিসাকেই গ্রেফতার করেছে পাকিস্তানের ফেডারেল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এফআইএ)।

পেশোয়ারে তাঁর বাড়ি থেকেই এ দিন গ্রেফতার করেছে এফআইএ। অভিযোগ, শরবত বিবি বেআইনিভাবে কম্পিউরাইজড ন্যাশনাল আইডেন্টিটি কার্ড তৈরি করেছেন। তাঁর কাছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান দুই দেশের নাগরিকত্বের পরিচয়পত্র পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছে ডন পত্রিকা।

১৯৮৫ সালে শরবত বিবির ছবি ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে প্রকাশিত হওয়ার পরে দীর্ঘদিন নিখোঁজ ছিলেন তিনি। ২০০২ সালে তাঁকে ফের খুঁজে বের করে ওই পত্রিকা। ১৭ বছর আগে তাঁর ছবি তুলেছিলেন ফোটোগ্রাফার ম্যাককারি। এবার তিনিই যান শরবত বিবির কাছে। দেখেই চিনতে পেরে যান তিনি। কারণ তাঁর চোখ দুটি ১৭ বছর পরেও ছিল সমান আকর্ষণীয়।