মেইন ম্যেনু

স্বামী ও সন্তানদের হত্যা করে নিজেকে দেবী বলল এই মহিলা!

নৃশংসভাবে স্বামী এবং তার দুই সন্তানকে হত্যা করেছে মধ্যপ্রদেশের এক মহিলা। তিনটি খুন করেই থেমে থাকেনি সে৷ পরিবারের অন্য সাত সদস্যকেও আক্রমণ করেছিল সে। তাঁদেরও হত্যা করার চেষ্টা করেছিল। আর এই ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে ৩০ বছরের রাজওয়া কোলের।

জানা গেছে, নিজেকে ঈশ্বর ভেবেই এমন কাজ করেছে সে। জেরায় জানিয়েছিল, পরিবারের সদস্যদের হত্যা করার পিছনে তার কোনও দোষ নেই৷ সে স্বয়ং ঈশ্বর। আর তাই এই কাজ করার অধিকার তার আছে। রাজওয়াকে মানসিক বিকারগ্রস্ত বলে মনে করছে পুলিশ। হত্যার দায়ে তাকে গ্রেফতার করা হলে সে নিজেকে দেবী বলে পরিচয়ও দিয়েছিল বলে জানা গেছে।

কেবল পুলিশ নয়, রাজওয়ার আইনজীবী জানিয়েছেন মানসিক বিকারগ্রস্ত তাঁর মক্কেল৷ আর তাই তাকে মুক্তি দেওয়া হোক। ২০১২ সালে এই হত্যালীলা চালিয়েছিল রাজওয়া৷ আর এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় প্রথমে তাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল আদালত৷ যদিও পরে তার মানসিক অবস্থার কথা মাথায় রেখে সেই সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। -সংবাদ প্রতিদিন।