মেইন ম্যেনু

হঠাৎ গরম পানি গায়ে পড়লে কী করবেন?

aid700887-728px-treat-a-hand-burn-step-4-version-2

গরম পানি দিয়ে বিভিন্ন ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এর মধ্যে সবচেয়ে প্রচলিত হলো গরম পানিতে পুড়ে যাওয়া। একে আমরা মেডিকেল ভাষায় বলি স্কেল বার্ন। পোড়া দুই ধরনের হতে পারে—ফ্লেমেবল বার্ন ও স্কেল বার্ন। স্কেল বার্নে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয় শিশুরা।

বিভিন্ন অসাবধানতার কারণে—যেমন হয়তো কোনো জায়গায় গরম কিছু রাখা আছে, এতে হাত পড়ে গেল, গরম পানির পাতিল পড়ে গেল, বাচ্চারা দৌড়াদৌড়ি করার সময় দুর্ঘটনা হলো, এমনকি চায়ের কাপ পড়ে গেল, বিভিন্ন কারণে এটা হতে পারে। এতে বাচ্চারা বেশি আক্রান্ত হয়। বড়রাও হন।

পোড়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের অপচিকিৎসার প্রচলন আছে। যেমন কেউ ডিম দেয়, ছাই ঘষে, পুড়ে যাওয়া জায়গায় কেউ নারকেল দেন, পেস্ট দেন। এগুলো একেবারেই করা যাবে না। কারণ, এগুলোতে লাভ তো হবেই না, বরং অনেক ক্ষতি হবে। এ ক্ষেত্রে পানি দিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট জায়গাটা ধুতে হবে। পরিষ্কার করতে হবে। বরফ দেওয়ার প্রয়োজন নেই, শুধু জায়গাটা ধুতে হবে।

এ ছাড়া বাজারে বিভিন্ন সিলভার সালাজিন মলম বা অয়েন্টমেন্ট পাওয়া যায় বিভিন্ন নামে। যেমন সিলকিন, বার্না ইত্যাদি দিতে পারি। পাশাপাশি ধারেকাছের হাসপাতালে রোগীকে নিয়ে যেতে হবে। পোড়ার চিকিৎসার অনেক ধাপ আছে, সেগুলো সম্পন্ন করতে হবে।

অনুলিখন : শাশ্বতী মাথিন