মেইন ম্যেনু

হারতে হারতে ড্র করলো ভারত

india20161113184801

রাজকোট টেস্টে জয়ের জন্য ভারতের সামনে লক্ষ্য ৩১০ রানের। এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছিল স্বাগতিকরা। বিরাট কোহলি ও রবীন্দ্র জাদেজা নৈপুণ্যে শেষ পর্যন্ত ম্যাচটিতে হারতে হারতে ড্র করেছে টিম ইন্ডিয়া। দ্বিতীয় ইনিংসে ১৭২ রান তুলতেই ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল তারা।

ঘরের মাঠে স্পিনবান্ধব উইকেট তৈরি করে উল্টো ইংল্যান্ডের স্পিনারদের তোপে পড়েছিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় ইনিংসে আদিল রশিদ ও মঈন আলীর ঘূর্ণিতে একে একে সাজঘরে ফিরছিলেন তারা। লক্ষ্য তাড়া করতে নামা ভারত শুরুতে বিপদে পড়ে গৌতম গম্ভীরের উইকেটটি হারিয়ে। দলের স্কোরশিটে কোনো রান যোগ না করেই সাজঘরে ফিরে যান ভারতীয় এই ওপেনার। কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক শিকার ক্রিস ওকসের।

আগের ইনিংসের দুই সেঞ্চুরিয়ান মুরালি বিজয় ও চেতশ্বর পুজারা তেমন ভালো করতে পারেননি। দুজনই আদিল রশিদের বলে ধরাশায়ী হয়েছেন। বিজয় ৩১ ও পুজারা ১৮ রান করে সাজঘরে ফিরে যান। ১ রান করা আজিঙ্কা রাহানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মঈন আলীর বলে সরাসরি বোল্ডআউট হয়ে। আর ২৩ রান করা রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে সাজঘরে ফেরান জাফর আনসারি।

আর ব্যক্তিগত ৯ রানের মাথায় আদিল রশিদের বলে ফিরতি ক্যাচ তুলে দেন ঋদ্ধিমান সাহা। দলকে হারের কবল থেকে রক্ষা করেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও রবীন্দ্র জাদেজা। কোহলি ৪৯ ও জাদেজা ৩২ রানে অপরাজিত ছিলেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৪ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ইংলিশদের সেরা বোলার আদিল রশিদ। একটি করে উইকেট নিয়েছেন ক্রিস ওকস, মঈন আলী ও জাফর আনসারি।

এর আগে অ্যালিস্টার কুক ৪৬ ও হাসিব হামিদ ৬২ রান নিয়ে পঞ্চম দিনের খেলা শুরু করে ইংল্যান্ড। ব্যক্তিগত ৮২ রানে অমিত মিশ্রর বলে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন হাসিব। আর কুক তুলে নেন সেঞ্চুরি। বিদায়ের আগে ২৪৩ বলে ১৩টি চারের সাহায্যে ১৩০ রানের ইনিংস খেলেন ইংলিশ অধিনায়ক। এরপর বেন স্টোকসের ২৯* রানে ভর করে ৩ উইকেটে ২৬০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ইংল্যান্ড। ভারতের পক্ষে অমিত মিশ্র ২টি ও বরিচন্দ্রন অশ্বিন একটি উইকেট লাভ করেন।

প্রসঙ্গত, প্রথম ইনিংসে জো রুটের ১২৮, মঈন আলীর ১১৭ ও বেন স্টোকসের ১২৮ রানে ভর করে ৫৩৭ রান তুলেছিল ইংল্যান্ড। জবাবে মুরালি বিজয়ের ১২৬ ও চেতশ্বর পুজারার ১২৪ রানের কল্যাণে ৪৮৮ রান তুলেছিল ভারত।