মেইন ম্যেনু

যুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পড়ায় হেনস্তার শিকার বাংলাদেশি শিক্ষার্থী

1102036_kalerkantho_pic-1

যুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পড়ায় হেনস্তার শিকার হয়েছেন এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজয়ী হওয়ার পর সেখানে হঠাৎ করেই মুসলিম, হিস্পানিক এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু অভিবাসীদের ওপর হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে বলে অভিযোগ করছেন এসব সম্প্রদায়ের মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি অভিবাসী, যাদের সংখ্যাগরিষ্ঠই মুসলিম।

ট্রাম্প তার নির্বাচনী প্রচারণায় মুসলিমদের লক্ষ্য করে যে ধরণের বক্তব্য রেখেছিলেন তারপর এ ধরণের হামলার জন্য তাকেই দায়ী করছেন মুসলিম সম্প্রদায়ের নেতারা।

নিউ ইয়র্কে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসী মাজেদা উদ্দীন নিজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে জানান, ‘এটা আমাদের জন্য বড় ধরনের সংকট হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পরের দিনের ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমার ভাইয়ের মেয়ে বাসে করে কলেজে যাচ্ছিল। সে হিজাব পড়ে। চারজন শ্বেতাঙ্গ দম্পতি তার ওপর হামলা চালায়। তারা ওর হিজাব ধরে টানাটানি করে আর চিৎকার করে বলতে থাকে এ দেশ থেকে বের হয়ে যা। এটা তোদের দেশ না। এরপর গালমন্দ করতে থাকে। সে বাস থেকে নেমে চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে ট্যাক্সিতে চড়ে বাসায় যায়।’

মুসলিমদের নিষিদ্ধ করা হবে বা হিজাব নিষিদ্ধ করা হবে বলে ট্রাম্প যে বক্তব্য দিয়েছেন তারপর সকলেই কমবেশি এমন আচরণের শিকার হচ্ছেন। মাজেদা নিজেও ভীত মনোভাব নিয়ে রাস্তায় চলাফেরা করেন বলে জানিয়েছেন।

তবে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর মুসলিমদের ওপর হামলা থামানোর কথা বলেছেন ট্রাম্প। তার এই ঘোষণায় পরিস্থিতি কতটা বদলাবে সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা।