মেইন ম্যেনু

হিলারির ই-মেইল তদন্তে অপরাধ পায়নি এফবিআই

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের বহুল আলোচিত নতুন ইমেইলগুলোর মধ্যে কোনো ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তিনি নির্দোষ।

দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এফবিআইয়ের পরিচালক জেমস কোমি এ কথা জানিয়েছেন। জেমস কোমির এক চিঠির বরাত দিয়ে রোববার বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

মার্কিন কংগ্রেসকে লেখা চিঠিতে কোমি বলেছেন, সংস্থাটি ইমেইল পর্যালোচনা শেষে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের প্রমাণ পায়নি।

এর আগে গত জুলাইতে এফবিআই পরিচালক বলেছিলেন, হিলারি ক্লিনটন অসতর্ক ছিলেন। তবে তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় নিজের ব্যক্তিগত ইমেইলে স্পর্শকাতর জিনিসপত্র রাখার ক্ষেত্রে কোনো অপরাধ করেননি।

চিঠিতে কোমি আরো বলেন, ‘ক্লিনটনের বিষয়ে জুলাইয়ে আমরা যে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিলাম, তার পরিবর্তন হয়নি।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র কয়েকদিন বাকি থাকতে হিলারির ইমেইলের বিষয়ে এফবিআই নতুন করে তদন্ত শুরু করলে এ নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক দেখা দেয়। এফবিআই পরিচালক কোমি বলেছিলেন, নতুন করে পাওয়া ইমেইল বার্তার মধ্যে গোপনীয় কোনো তথ্য আছে কি না, তা তদন্ত করে দেখবেন তারা।

এর ফলে জনমত জরিপে হিলারির চেয়ে পিছিয়ে থাকা রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প উজ্জীবিত হয়ে ওঠেন। লড়াইয়ে টিকে থাকার নতুন রসদ হাতে পান।

এদিকে রোববার এফবিআইয়ের চিঠির পর সন্তোষ প্রকাশ করেছেন হিলারি। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় হিলারির জনসংযোগ পরিচালক জেনিফার পালমিয়েরি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা খুবই আনন্দিত যে বিষয়টির সুন্দর নিষ্পত্তি হয়েছে।’