মেইন ম্যেনু

হোয়াইট হাউসের খুব কাছাকাছি ট্রাম্প

প্রেসিডেন্ট হয়ে হোয়াইট হাউসে যাওয়ার বাসনার কথা জানিয়ে ভোটারদের সামনে হাজির হওয়ার অনেক আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ ডোনাল্ড ট্রাম্পকে চেনে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে রঙদার, সবচেয়ে জাঁকালো ধনকুবের হিসেবে। কয়েক বছর আগেও তার ঘনিষ্ঠরা ভাবতে পারেননি ব্যবসায়ী ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতির একেবারে কেন্দ্রে আবির্ভূত হবেন। সেই ট্রাম্প আজ রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন নিয়ে পৌঁছে গেছেন হোয়াইট হাউসের খুব কাছাকাছি।

মোট ৫৩৮ ইলেক্টোরাল ভোটের মধ্যে ২৭৭টির ফল প্রকাশ হয়েছে। এতে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ১৬৮টি ও ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন ১৩১টি ইলেক্টোরাল কলেজ পেয়েছেন।

এদিকে সুইং স্ট্যাটের বেশিরভাগেই এগিয়ে আছেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রসিডেন্ট পদে জয়ী হতে প্রয়োজন ২৭০টি ইলেক্টোরাল ভোট।

প্রাথমিক এই ফল বলছে, সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে আলোচিত এই নির্বাচনে হিলারি ক্লিনটনকে পেছনে ফেলে ডোনাল্ড ট্রাম্পই কি হচ্ছেন হোয়াইট হাউসের উত্তরাধিকারী।

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, এ মুহূর্তে ট্রাম্পেরই সম্ভাবনা বেশি দেখা যাচ্ছে। বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে এ পর্যন্ত ভোট যত পড়েছে, তা থেকে তৈরি করা হয়েছে। এছাড়া এসব জায়গায় আগের নির্বাচনগুলোর ফলও বিবেচনায় রাখা হয়েছে।

তবে পপুলার ভোটে (জনগণের ভোটে) এগিয়ে আছেন হিলারি। এখানে ট্রাম্পের তুলনায় প্রায় দুই শতাংশ বেশি ভোট পেয়েছেন হিলারি। তবে হিলারি জানিয়েছেন, ভোটের ফল যা-ই হোক না, তিনি তা মেনে নেবেন। ভোটারদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৬টা থেকে ভোট নেয়া হয় দেশটির ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য। বিভিন্ন সংস্থার জরিপে বলা হয়েছে, ৫৮তম এই নির্বাচনে প্রায় ৫৪ শতাংশ ভোটার ভোট দিয়েছেন।