মেইন ম্যেনু

৩০০ কর্মচারি নিয়ে বেড়াতে গেলেন এক হীরা ব্যবসায়ী

164931_177

শ্রমের যোগ্য মূল্য দিতে জানে বহু কোম্পানি। তাই চীনে বহু বিজনেস টাইকুনই সাম্প্রতিক অতীতে তাঁদের প্রতিষ্ঠিানের কর্মীদের কাজে উদ্বুদ্ধ করতে পাঠিয়েছেন সংস্থার খরচায় বেড়াতে। এবার সেই নজির দেখা গেল প্রতিবেশি দেশ ভারতেও। গুজরাতের এক হীরে ব্যবসায়ী তাঁর সংস্থার প্রায় তিনশো কর্মী ও তাঁদের পরিবার সহ ১২০০ জনের একটি দলকে ১০ দিনের ছুটিতে উত্তরাখণ্ড ঘুরতে পাঠালেন।

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগে দীপাবলী উপলক্ষ্যে সুরাতের হীরে ব্যবসায়ী সাবজি ঢোলাকিয়া কর্মীদের আশ্চর্য করার মতো উপহার দিয়েছিলেন। হরে কৃষ্ণ এক্সপোর্টের কর্মীদের বোনাসের জন্য এবছর ব্যয় হয়েছে ৫১ কোটি টাকা। কোম্পানির সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে এ বছর কর্মীদের ৪০০ ফ্ল্যাট ও ১,২৬০টি গাড়ি দেন ঢোলাকিয়া।

এবার সংস্থার কর্মীদের সবেতন ঘুরতে পাঠিয়ে নয়া নজির গড়লেন হীরে ব্যবসায়ী গোবিন্দ ধোলাকিয়া। সুরাত এবং মুম্বই দুজায়গাতেই ব্যবসা রয়েছে তাঁর। তাঁর সংস্থা শ্রী রামকৃষ্ণ এক্সপোর্টের কর্মীদের ১৫ দিনের ছুটি দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, কর্মীদের জন্যে একটি বিশেষ এসি ট্রেন বুক করে দেওয়া হয়েছে সংস্থার তরফে। সেই ট্রেনে করেই কর্মীরা উত্তরাখণ্ড বেড়াতে গিয়েছেন। মূলত সংস্থার কর্মীদের বেড়াতে পাঠাতে সংস্থার প্রায় ৯০ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে।

শ্রী রামকৃষ্ণ এক্সপোর্টের এক কর্মী জানিয়েছেন এটা হল তাঁদের বার্ষিক আউটিং, যা প্রতিবছরই তাঁদের সংস্থার তরফে আয়োজন করা হয়। সংস্থার কর্মীরা গোবিন্দ ধোলাকিয়াকে ‘কাকাজী’ নামে ডাকেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মীর দাবি, কাকাজী তাঁদের তাঁর পরিবারের সদস্য হিসেবেই দেখেন। তাই তাঁদের সঙ্গে বেড়াতেও যান। তবে উত্তরাখণ্ড বেড়াতে গিয়ে সংস্থার কর্মীরা ঘুরে বেড়ানো ছাড়াও, কিছু সমাজসেবাও করেছেন। কর্মীরা মিলে ঋষিকেশের স্বর্গআশ্রম এলাকার কিছু অংশ পরিষ্কার করেছেন। সেখানকার নগর পঞ্চায়েতের সদস্য মনীষ রাজপুত জানিয়েছেন, সংস্থারকর্মীরা প্রায় ৫০০ মিটার এলাকা পরিষ্কার করেছেন। তবে গোবিন্দ ধোলাকিয়ার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও, তাঁর থেকে এপ্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি। -এবিপি আনন্দ।