মেইন ম্যেনু

৫ হাজার একশ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেছে পাকিস্তান

accounts20161025113453

জঙ্গি দমনে এবার কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে পাকিস্তান। দেশটিতে জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ৫ হাজার ১শ’ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এই অ্যাকাউন্টগুলোতে মোট ৪০ কোটি রুপি জমা রয়েছে। বন্ধ করে দেয়া অ্যাকাউন্টের মধ্যে জইশ-ই-মুহাম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারের ব্যাংক অ্যাকাউন্টও রয়েছে। খবর প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার।

পাঠানকোট হামলায় জড়িত থাকার সন্দেহে মাসুদ আজহারসহ আরো কয়েক হাজার সন্দেহভাজন জঙ্গির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তানের (এসবিপি) এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে এক অনুরোধের ভিত্তিতেই আল্লাহ বক্সের পুত্র মাসুদ আজহারসহ সব সন্দেহভাজন শীর্ষ জঙ্গির ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

তিনি জানিয়েছেন, সম্প্রতি সন্দেহভাজন জঙ্গিদের তিনটি তালিকা পাঠিয়েছে মন্ত্রণালয়। মাসুদ আজহার এবং বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের নেতাদের নামসহ প্রায় পাঁচ হাজার জঙ্গির নাম ছিল ওই তালিকায়। যে সন্দেহভাজনদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়েছে তাদের মধ্যে ১২০০ জনের নাম ক্যাটাগরি ‘এ’ তালিকায় অন্তর্ভূক্ত ছিল।

দেশের সন্ত্রাসবিরোধী আইন অনুযায়ী ক্যাটাগরি ‘এ’ তালিকাভুক্ত জঙ্গিরা সবচেয়ে বিপজ্জনক। এই তালিকাতেই মাসুদ আজহারের নাম রয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, পাঠানকোটে সেনা ঘাঁটিতে হামলার পর পাকিস্তান সরকার আজহারকে নিরাপদে আশ্রয় দিয়েছে। কিন্তু জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে মাসুদ আজহারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানায় ভারত।

এ মাসের শুরুতে দ্য ন্যাশনাল কাউন্টার টেরোরিজম অথরিটি (নাকটা) এসবিপির কাছে মাসুদ আজহারসহ ৫,৫০০ সন্দেহভাজনের নাম পাঠায়। ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের কাছে ওই তালিকা পাঠানো হয়েছে।

বন্ধ করে দেয়া অ্যাকাউন্টগুলোর মধ্যে ৩ হাজার ৭৮ সন্দেহভাজন জঙ্গি খাইবার পাখতুনওয়া ও ফাতে অঞ্চলের। ১ হাজার ৪৪৩ জন পাঞ্জাব প্রদেশের, ২২৬ জন সিন্ধু প্রদেশের, ১৯৩ জন বালুচিস্তানের, ১০৬ জন গিলগিট-বালতিস্তানের এবং ২৭ জন ইসলামাবাদের। পাক অধিকৃত কাশ্মিরের ২৬ জনের নামও ওই তালিকায় রয়েছে।

এদিকে, ইসলামাবাদের লাল মসজিদের মৌলবি মাওলানা আজিজ, আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের নেতা মৌলবি আহমেদ লুধিয়ানাভি এবং আওরঙ্গজেব ফারুকি, আল কায়েদার মতিউর রহমান, তেহলিক ই তালিবানের মনসুর আলিয়াস ইব্রাহিম, লস্কর ই জানভির রমজান মেঙ্গল ও কারি এহসান ইলিয়াস উস্তাদ হুজাইফার অ্যাকাউন্টও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।