মেইন ম্যেনু

৭৬৭ বাংলাদেশি আটক মালয়েশিয়ায়, কিন্তু জানে না দূতাবাস!

bd1

মালয়েশিয়ার সমুদ্রতীরের পোর্ট ডিকসনের একটি নির্মাণ প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ৭৬৭ বাংলাদেশিসহ ৯৩৬ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করেছে সেদেশের ইমিগ্রেশন পুলিশ। ত‍ারা অবৈধভাবে দেশটিতে বসবাস করছিলেন বলে অভিযোগ আনা হয়েছে।

এ নিয়ে যোগাযোগ করলে তথ্য নিশ্চিত করতে পারেনি মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস। রোববার (২৮ নভেম্বর) পোর্ট ডিকসনের জিমাহ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয় বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা বারনামা।

বারমানা নেগেরি সেম্বাইলান রাজ্যের ইমিগ্রেশন পুলিশের পরিচালক হাপজান হুসাইনিকে উদ্ধৃতি করে জানিয়েছে, আটক হওয়া অভিবাসীদের বয়স ২০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে। তাদের বিরুদ্ধে জাল ভিসা ব্যবহার, বৈধ কাগজপত্র ছাড়া বা মেয়াদপূর্তির পরেও মালয়েশিয়ায় অবস্থানসহ বিভিন্ন অভিযোগ আনা হয়েছে।

আটকদের ৭৬৭ জন বাংলাদেশ, ৮০ জন পাকিস্তান, ৫০ জন ভারত, ২২ জন ইন্দোনেশিয়া, ১৩ জন শ্রীলঙ্কা, তিনজন মিয়ানমার ও একজন নেপালের নাগরিক বলে বারনামার খবরে জানানো হয়।

সম্প্রতিকালে চাকরির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া শ্রমিকদের নিয়োগ চুক্তি নবায়নের সুযোগ দেয় মালয়েশিয়া। কিন্তু তাতে খুব বেশি সাড়া পাওয়া যায়নি। এদিকে চুক্তি নবায়নের সুযোগ শেষ হতেই অবৈধ অভিবাসীদের আটকে অভিযান শুরু করেছে দেশটি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, এ সব খবর ওরা সঙ্গে সঙ্গে জানায় না, কিছুদিন সময় নেয়। তবে মুখে মুখে কিছু তো ইনফরমেশন আমাদের কাছে আসে। তারপর আমরা যোগাযোগ করি। টেলিফোনের পরও ওরা (মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ) নিশ্চিত করে কোনো কিছু বলে ন‍া। ওরা হয়ত বলে তিনশ বা দুইশ’র মতো ধরেছি।

হাইকমিশনার আরও বলেন, যারা আটক হয়, তাদের কাছে কোনো বৈধ কাগজপত্র থাকে না। ফলে তাদের মধ্যে কতজন বাংলাদেশি সেটা সহজে বলা কঠিন।