মেইন ম্যেনু

৭ নভেম্বর নিয়ে হানিফের বক্তব্য অনাকাঙ্ক্ষিত : রিজভী

৭ নভেম্বের বিএনপিকে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালন করতে দেয়া হবে না বলে মাহবুব-উল আলম হানিফের দেয়া বক্তব্য আওয়ামী লীগের নয়, তার তা তার নিজস্ব বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ৭ নভেম্বর আওয়ামী লীগের একদলীয় শাসনতন্ত্র থেকে বহুদলীয় শাসন ব্যবস্থা শুরু হয়েছিল। এরকম একটা দিন নিয়ে মাহবুবুল আলম হানিফের বক্তব্য অনাকাঙ্খিত।

তিনি বলেন, হানিফ সাহেবের বক্তব্য এ রকমই। তিনি সব সময়ে বলেন প্রতিহত করবো, মেরে ফেলবো, করতে দিব না।

রিজভী বলেন, ৭ নভেম্বর নিয়ে তার (হানিফ) আয়নার দিকে তাকিয়ে কথা বলা উচিৎ। যেখানে আওয়ামী লীগ ও জাসদের বিরোধে কুষ্টিয়াতে ৭ জন নিহত হয়েছেন, সেখানে তিনি এ বক্তব্য দেন কি করে?

বিএনপির এই নেতা বলেন, ৭ নভেম্বর সমাবেশ হবে। আমরা প্রত্যাশা করছি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সমাবেশের অনুমতি দিবে। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ওই সমাবেশে মানুষের ঢল নামবে।

এ সময় তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নাসির নগরে ফেইস বুকের মাধ্যমে পবিত্র কাবা শরিফকে অবমাননা করে দেওয়া পোষ্টের নিন্দা ও প্রকৃত দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবি এম মোশাররফ হোসেন, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন প্রমুখ।