মেইন ম্যেনু

গাইবান্ধা

গাইবান্ধায় চিকিৎসকের লাথিতে রোগীর পেটে সন্তানের মৃত্যু

গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জে ভুল আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টের প্রতিবাদ করায় চিকিৎসকের লাথিতে মুক্তিযোদ্ধার নাতনী গৃহবধূ ইসমতারার পেটের সন্তান মারা যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় চিকিৎসক শরিফুল আলম সুমনের নামে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ফুলবাড়ি ইউনিয়নের বড় সাতাইল বাতাইল গ্রামের মনিরুল ইসলামের স্ত্রী ইসমতারা গত ১২ জুলাই স্থানীয় গোবিন্দগঞ্জ নিরাময় ডায়াগনস্টিক সেন্টারে গিয়ে ডা. শরিফুল আলম সুমনের কাছে আল্ট্রাসনোগ্রাম করেন। রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়, তার গর্ভে দু’টি সন্তান রয়েছে। এতে সন্দেহ হলে ২৪ দিন পর গত ৪ আগস্ট বিসমিল্লাহ ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আরেক ডাক্তারের কাছে আল্ট্রাসনোগ্রাম করলে সেখান থেকে প্রাপ্ত রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়, ইসমতারার পেটে দুটি নয়,বিস্তারিত