মেইন ম্যেনু

যুবতীর প্রেম পাল্টে দিল জীবনের রূপরেখা (ছবি ও ভিডিওসহ)

অন্যকে আলোকিত করে নিজেই অন্ধকারে!

রাজশাহীর তানোরের মুণ্ডমালা পৌর এলাকার জোতগৌরিব গ্রাম। কয়েক দশক আগে যে গ্রামে যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল বেহাল। আশেপাশের লোকজন গ্রামটিকে ভূতের গ্রাম বলে ডাকতো। কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকায় গ্রামের মানুষ বই হাতে নিতে পারেনি। পুরো গ্রামটি যেনো অন্ধকারে হাবুডুবু খাচ্ছিল। গ্রামের এমন করুণ অবস্থা দেখে ১৯৮৭ সালে নিজের চেষ্টায় একটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় করছিলেন নিতাই চন্দ্র বর্মন। নাম রেখেছিলেন জোতগৌরিব আদিবাসী প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিনা বেতনে প্রধান শিক্ষকের চাকরি করেছেন তিনি। মানুষের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়াতে নিরন্তর পরিশ্রম করে গেছেন তিনি। বর্তমানে তার গড়া ওই বিদ্যালয়টি সরকারি হয়েছে। শিক্ষিত হয়েছে সমাজ। গ্রামে এসেছে বিদুৎ, হয়েছে পাকা রাস্তাও। পরিবারগুলোতে গড়ে উঠেছে আলোকিতবিস্তারিত